Remote Voting: ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে চালু হতে পারে রিমোট ভোটিং, আশাবাদী মুখ্য নির্বাচন কমিশন সুনীল অরোরা
নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা (Photo: ANI)

নতুন দিল্লি, ২১ মার্চ: রিমোট ভোটিং (Remote Voting) নিয়ে আরও আশার কথা শোনালেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা (CEC Sunil Arora)। শনিবার আশা প্রকাশ করেছেন যে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের মধ্যে রিমোট ভোটিং দিনের আলো দেখবে। তিনি জানিয়েছেন যে আগামী দু-তিন মাসের মধ্যে একটি পাইলট প্রকল্প শুরু হতে পারে। রিমোট ভোটিং শুরু হলে দেশের যে কোনও প্রান্ত থেকে ভোট দেওয়া সম্ভব হবে। ভোট দেওয়ার জন্য আর কেন্দ্রে যেতে হবে না। একটি অনুষ্ঠানে সুনীল অরোরা বলেন, নির্বাচন কমিশন এই বছরের গোড়ার দিকে আইআইটি মাদ্রাজ এবং অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানের বিশিষ্ট প্রযুক্তিবিদদের সঙ্গে পরামর্শ করে রিমোট ভোটদান চালু করার জন্য একটি গবেষণা প্রকল্প শুরু করেছিল। তিনি বলেন, গত কয়েক মাস ধরে একটি দল এই প্রকল্পটিকে রূপ দেওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে চলেছে। আমরা আশাবাদী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের মধ্যে তা দিনের আলো দেখবে।

সুনীল অরোরা বলেন, এটা ঠিক ইন্টারনেট ভিত্তিক ভোটদানের লক্ষ্যও নয় বা এটি বাড়ি থেকে ভোট দেওয়ার ইঙ্গিত দেয় না। তিনি বলেন, নির্বাচনে স্বচ্ছতা, ভোটদানের গোপনীয়তা, অবাধ, সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন নিশ্চিত করা কমিশনের সর্বদা বিবেচ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। কমিশন শীঘ্রই বিভিন্ন বিকল্পের বিষয়ে আলোচনা করার পরে এই জাতীয় ভোটের চূড়ান্ত মডেলটিকে রূপ দেবে। রিমোট ভোটিং চালুর ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দল ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে আরও বিস্তৃত আলোচনা হবে। আরও পড়ুন: COVID-19 Cases In India: ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হলেন ৪৩ হাজার ৮৪৬ জন

অনাবাসী ভারতীয়দের ভোট দেওয়ার জন্য একমুখী বৈদ্যুতিন ডাক ব্যালট ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার বিষয়ে ভাবছে কমিশন। এ নিয়ে কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রকের কাছে প্রস্তাবও পাঠায় নির্বাচন কমিশন। এই প্রসঙ্গে অরোরা বলেন, পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন শেষ হওয়ার পরে পোল প্যানেল সকল স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা করবে। সরকার এই প্রস্তাবই দিয়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করেছেন যে আগামী ছয় মাস বা এক বছরে এই ভাবনা বাস্তবায়িত হবে। বর্তমানে, অনাবাসী ভারতীয়রা যে নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দা সেই স্থানের নাম পাসপোর্টে উল্লেখ থাকলে তবেই ভোট দিতে পারেন।