COVID-19 Vaccine Update: পুনেতে শুরু হল অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: ANI)

পুনে, ২৬ আগস্ট: পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ায় তৈরি হচ্ছে অক্সফোর্ডের আবিষ্কৃত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন (COVID-19 Vaccine)। আজ বুধবার পুনের ভারতী বিদ্যাপীঠ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শুরু হল মানুষের শরীরে সেই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের দ্বিতীয় পর্যায়। হাসাপাতালের তরফে দায়িত্বপ্রাপ্ত এক পদস্থ কর্তা জানান, ইতিমধ্যেই ২ জন পুরুষ স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হয়েছে। আজ বেলা একটা নাগাদ এই পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হয়।অক্সপোর্ডের তৈরি এই ভ্যাকসিনের নামকরণ করা হয়েছে কোভিশিল্ড। এদিন বছর ৩২-এর এক যুবকের কোভিড-১৯ ও অ্যান্টিবডি টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর তাঁর শরীরে কোভিশিল্ট ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হয়। এদিন এই তথ্য দিলেন ভারতী বিদ্যাপীঠ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ডিরেক্টর ডক্টর সঞ্জয় লালওয়ানি।

ডক্টর লালওয়ানি জানান, এছাড়া বছর ৪৮-এর আর ব্যক্তির শরীরে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হয়েছে আজ। ওই স্বেচ্ছাসেবক চিকিৎসা সংক্রান্ত বিভাগেই কর্মরত। অন্যদিকে ৩২ বছরের যুবক একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী। ভ্যাকসিনের পর্য়োগের আগে এই ২ জনের রক্তচাপ, শরীরে তাপমাত্রা ও হৃদযন্ত্রের গতিবিধি পরীক্ষা করে নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার হাতে কোভিশিল্ড চলে আসার পর পাঁচজন স্বেচ্ছাসেবক ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য নিজেদের নাম নথিভুক্ত করান। এই পাঁচ জন স্বেচ্ছাসেবকেরই কোভিড-১৯ ও অ্যান্টিবডি টেস্ট হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনের অ্যান্টিবডি টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। স্বাভাবিকভাবেই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য তাঁরা আর উপযুক্ত নন। তবে বাকি দু’জনের শরীরে ইতিমধ্যেই কোভিশিল্ডের প্রয়োগ হয়ে গিয়েছে। তাঁদের শারীরিক অবস্থার মনিটরি চলছে সবসময়। আগামী সাত দিনে সবমিলিয়ে মোট ২৫ জন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে এই কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হবে। আরও পড়ুন-Viral: করোনা যোদ্ধাদের জন্য নিজের হাতে চকলেট চিপ কুকিজ বানিয়ে পৌঁছে দিচ্ছে ৩ বছরের শিশুকন্যা, দেখুন ভিডিও

উল্লেখ্য মহামারী করোনাকে দূর করতে ব্রিটিশ সুইডিশ ওষুধ সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকা জেনার ইনস্টিটিউট অফ অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সঙ্গে যৌথভাবে এই কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। ভারতে যাতে এই ভ্যাকসিন প্রস্তুত করা হয় সেজন্য বিশ্বের অন্যতম ব্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থা সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া ইতিমধ্যেই এক চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। আর সেই চুক্তি মেনেই কোভিশিল্ড তৈরি হচ্ছে ভারতে।