জাকির নায়েককে নিয়ে একটি কথাও বলেননি নরেন্দ্র মোদি, মুখ খুললেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ
মালয়েশিয়া ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও জাকির নায়েক (Photo Credit: PTI)

কুয়ালালামপুর, ১৭ সেপ্টেম্বর: বিতর্কিত ও কট্টর ইসলাম ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েককে দেশে ফেরানোর কথা বলেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। চলতি মাসে ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরামের সাইড লাইনে যখন মালয়েশিয়ান প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ ও নরেন্দ্র মোদি বৈঠক করছিলেন, তখন তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক বিষয় ও ব্যবসা বাণিজ্য নিয়ে আলোচনা হলেও জাকির নায়েকের প্রসঙ্গ ওঠেনি। তাঁকে ভারতে প্রত্যাবর্তন করা নিয়ে কোনও রকম উচ্চবাচ্চই করেননি নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যমের সামনে একথাই বললেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী। এদিকে ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরাম (EEF) থেকে ফেরার পরই জানা গিয়েছিল, মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নেওয়া বিতর্কিত ইসলাম প্রচারক জাকির নায়েককে এবার প্রত্যার্পণ (extradition) করবে ভারত। এই প্রত্যার্পণ প্রক্রিয়ায় মহাথির মহম্মদ সম্মতি দিয়েছেন।

এদিন মালয়েশিয়ার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া জাকির নায়েক প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে মহাথির মহম্মদ (Malaysia Prime Minister Mahathir Mohamad) বলেন, “অনেক দেশই ওই ইসলাম ধর্ম প্রচারককে চায় না। কয়েকদিন আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গেও আমার দেখা হয়েছিল। তিনিও জাকির নায়েকের বিষয়ে আমায় কিছু বলেননি। জাকির নায়েক মালয়েশিয়ার নাগরিক নন, পূর্ববর্তী সরকার তাঁকে এদেশে স্থায়ীভাবে বসবাসের ছাড়পত্র দিয়েছে। আর এদেশে যাঁরা স্থায়ী বাসিন্দা তাঁরা কখনওই সরকারের কোনও কার্যকলাপ বা রাজনীতি নিয়ে মন্তব্য করতে পারেন না, নিয়ম নেই। এদিকে জাকির নায়েক এনিয়ে মন্তব্য করে সেই নিয়ম ভেঙেছেন। সেকারণেই তাঁকে কথা বলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।” তিনি আরও বলেন, “জাকির নায়েক মালয়েশিয়ার নিয়ম কানুন মানেননি, তাই তাঁকে আর এদেশে রাখা সম্ভব নয়। আমরা এমন একটা দেশ খুঁজছি যেখানে এই ভারতীয় ইসলাম ধর্ম প্রচারককে পাঠানো যেতে পারে। তেমনই একটা দেশ খুঁজে পেলে সেখানে তিনি যেতে পারবেন, তবে এই সময় কোনও দেশই জাকির নায়েককে গ্রহণ করতে রাজি নন।” আরও পড়ুন-পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ইমরান খানের বিরোধিতায় স্লোগান? মুজাফ্ফরাবাদের তরুণদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের

এদিকে মালেয়শিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখলের বক্তব্যের মধে আকাশ পাতাল ফারাক প্রকাশ্যে আসায় বিতর্ক শুরু হয়েছে। ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরামে মহাথির মহম্মদের কাছে সেদেশে পালিয়ে যাওয়া বিতর্কিত ইসলাম প্রচারক জাকির নায়েককে ফেরানোর কথা বলেছিলেন নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। বিজয় গোখলে অন্তত সাংবাদিক সম্মেলনে একথা বলেছিলেন বেশ কয়েকদিন আগে। অন্যদিকে মহাথির মহম্মদের দাবি, জাকির নায়েক (Zakir Naik) প্রসঙ্গে কোনও কথাই বলেনননি ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, ২০১৬-তে ঢাকার গোলি আর্টিসন বেকারিতে একটি ভয়াবহ সন্ত্রাসবাদী হামলা হয়। এই হামলায় প্রচুর মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। তদন্তে নেমে পরে গোয়েন্দার জানতে পারেন হামলার পিছনে জাকির নায়েকের মাথা রয়েছে। তারপরেই দেশ ছেড়ে মালয়েশিয়ায় পালিয়ে যান জাকির নায়েক। এদিকে সেখানেএ নায়েকের বিরুদ্ধে তদন্ত হয়েছে। তবে যাইহোক না কেন জাকির নায়েককে ভারতে প্রত্যাবর্তনে নারাজ মালয়েশিয়ান সরকার। তাদের দাবি, ভারতে ফিরলে বিতর্কিত নায়েককে খুন করা হবে।