Burdwan: জঙ্গলে কাঠ কুড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার আদিবাসী নাবালিকা, বিবস্ত্র-অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার
প্রতীকী ছবি (Photo Credit: PTI)

পশ্চিম বর্ধমান, ৬ অক্টোবরঃ জঙ্গলে কাঠ কুড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার আদিবাসী নাবালিকা ( Tribal Girl Raped in Burdwan)। বিবস্ত্র অবস্থায় জঙ্গল থেকে উদ্ধার করে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে নির্যাতিতাকে। চিকিৎসক সূত্রে খবর, নাবালিকার অবস্থা আশঙ্কাজনক। পশ্চিম বর্ধমান (West Burdwan) জেলার কাঁকসা থানা এলাকার নারকীয় ঘটনায় চাঞ্চল্য। তদন্তে এক নাবালক সহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে কাঁকসা থানার পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ হাত, পা, মুখে সেলোটেপ জড়ানো অবস্থায় সুটকেস থেকে উদ্ধার MBBS পরীক্ষার্থীর দেহ, নিউ টাউনে চাঞ্চল্য

ঘটনা প্রসঙ্গে জানা যাচ্ছে, বৃহস্পতিবার কাঁকসার কুলডিহার আদিবাসী পাড়ার দুই নাবালিকা কাঠপাতা কুড়োতে জঙ্গলে গিয়েছিল। বিকেলে বাড়ি ফেরার সময়ে এলাকার চার যুবক পথ আটকায় দুই কিশোরীর। একজন কোনক্রমে নিজেকে বাঁচিয়ে পালিয়ে আসে। কিন্তু অন্যজন গণধর্ষণের শিকার হয়। ধর্ষণ করে বিবস্ত্র অবস্থায় নাবালিকাকে জঙ্গলে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় চার অভিযুক্ত।

আরও পড়ুনঃ সিকিমে বেড়াতে গিয়ে দুর্যোগের পর থেকেই নিখোঁজ বীরভূমের পরিবারের ৮ সদস্য

নির্যাতিতার বান্ধবী বাড়ি এসে সবকথা জানালে পরিবার নাবালিকাকে খুঁজতে বের হয়। জঙ্গলের মধ্যে বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার হয় নাবালিকা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কাঁকসা থানার পুলিশ। নির্যাতিতা নাবালিকার বাবা পুলিশের কাছে লিখত অভিযোগ দায়ের করেছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে এক নাবালক সব মোট চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।