West Bengal Weather Update: এক ধাক্কায় ২ ডিগ্রি পারদ পতন, হেমন্তের সাতসকালে শীতের আগমন রাজ্যে
শীত (প্রতীকী ছবি: File Photo)

কলকাতা, ৪ নভেম্বর: হেমন্তের শিরশিরানির মধ্যেই আলিপুরের হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস (West Bengal Weather Update) ফলে গেল। এক রাতেই পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ২ ডিগ্রি নেমে গেল পারদ। বুধবার সকালেই হিমেল হাওয়া জানান দিল, ভারতের অন্যান্য রাজ্যের মতো এই বঙ্গেও ঢুকে পড়েছে শীত। উত্তুরে হাওয়ার দাপট শুরু হল বলে। আবহাওয়া দপ্তরের খবর বলছে, আগামী কয়েকদিনে পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে তাপমাত্রা আরো ৫ ডিগ্রি নেমে যাবে। বুধবারই সকালে যাঁরা প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছিলেন তাঁদের অনেকের গায়েই ছিল গরম পোশাক ও গলায় মাফলার। তবে এই শীতভাগ্য যে দক্ষিণের কপালে শিকে ছিঁড়েছে এমন নয়। আগামী কয়েকদিনে উত্তরের জেলাগুলিতেও তাপমাত্রার পারদ নামবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় আবার হালকা বৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই উত্তরবঙ্গে বেশ ভালো ঠান্ডা পড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। অন্যদিকে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ও তামিলনাড়ু উপকূলে উত্তর-পূর্ব মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় মৌসম ভবন জানাচ্ছে আগামী কয়েকদিন দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। একই সঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তর পূর্বের অসম, মেঘালয়, মণিপুর, নাগাল্যান্ড, মিজোরামে।

অন্যদিকে কালীপুজোর আগেভাগে শীতের আগমনে দক্ষিণবঙ্গের বাসিন্দারা হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে। মঙ্গলবার বেলার দিকেই কলকাতার তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছিল। সন্ধের দিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাতে সেই তাপমাত্রা ফের এক ধাক্কায় ২ ডিগ্রি কমে হয় ২২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে বুধবার দিনের বেলায় কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে পৌঁছানোর পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। ভোরে ও রাতে শিরশিরানি অনুভূত হলেও, দিনের বেলায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি থাকবে বলে জানানো হয়েছে। বাতাসে জলীয় বাস্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ রয়েছে ৯০ শতাংশ। বুধবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় তাপমাত্রা ক্রমে কমতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। এ সপ্তাহের শেষেই শহর ও শহরতলির তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রির নিচে নামবে বলে আশা করা হচ্ছে।