Winter in West Bengal: শুক্রবার সকালে থেকে উত্তুরে হাওয়ার দাপট, অবশেষে শীতবুড়োর বঙ্গে আগমন
প্রতীকী ছবি (Representational Image Only)

কলকাতা, ১৮ ডিসেম্বর: শুক্রবার সকাল থেকেই ঝকঝকে আকাশ, মন ভরিয়ে দেওয়া রোদ্দুর আর উত্তুরে হাওয়ার দাপট জানান দিচ্ছে, শীত এসে গেল জাঁকিয়ে। আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝি পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গ কাঁপাবে এই শীত (Winter)। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায় শুরু হতে পারে শৈত্যপ্রবাহের দাপটও। সপ্তাহের মাঝামাঝি কোনও একদিন তাপমাত্রার পারদ নামতে পারে ১২ ডিগ্রি পর্যন্ত। তবে তিন চার ডিগ্রি নিজে যাবে পারদ তা নিশ্চিত। শীতের আভাস পেয়েই রাজ্যজুড়ে সাজসাজ রব পড়েছে। বছর শেষের কটা দিন করোনার ভয়াবহতাকে ভুলে বঙ্গবাসী নিজেদের মতো করে শীত উপভোগে মাততে চায়। তাইতো উইকএন্ডে কাছে পিঠে পিকনিক, ঘুরতে যাওয়ার ধুম পড়েছে। আরও পড়ুন-Neha Kakkar: বিয়ের ২ মাসের মধ্যেই বেবি বাম্প, মা হতে চলেছেন নেহা কক্কর?

পরের সপ্তাহেই বড়দিন। সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের কথা মাথায় রেখে এই সপ্তাহেই অনেকে বেরিয়ে পড়েছেন। কেু কেউ আবার করোনার তাড়নায়, বাড়ির ছাদ, গ্রাম বাংলার বাগানবাড়ি হোমস্টেতে বর্ষশেষের ছুটি কাটাতে চান। শীতের আমেজ কলকাতাতেও দেখা গিয়েছে। এদিন সোয়েটার, শাল, চাদর জড়িয়েই অনেকে পথে নেমেছেন। তবে হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী এ বছরের শীতের ঝুলিতে দক্ষিণবঙ্গের জন্য সময় খানিকটা কমই। চলতি মরসুমে অক্টোবরের শেষ থেকেই জাঁকিয়ে শীত পড়েছে উত্তর ভারতে। যদিও বাংলায় তার প্রতিফলন সে ভাবে দেখা যায়নি। প্রথম দিকে বঙ্গোপসাগরের ঘূর্ণিঝড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল, পরে হিমেল হাওয়ার পথে পাঁচিল তুলে দেয় পরের পর পশ্চিমি ঝঞ্ঝা। ভালো ঠান্ডার অন্যতম শর্তই হল, দু'টি ঝঞ্ঝার মধ্যে সময়ের পর্যাপ্ত ফারাক চাই। তবেই ঠান্ডা বাতাসে তাপমাত্রা নামার সুযোগ পায়। কিন্তু ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে পর পর লাইন দিয়ে এসেছে তিনটি শক্তিশালী ঝঞ্ঝা। তাই তাপমাত্রা নামার বদলে উলটপুরাণই দেখেছে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গ।

উত্তরভারতের বিভিন্ন অংশে শৈত্য প্রবাহের সতর্কতা জারি হয়েছে। মেঘে কেটে যাওয়ায় হু হু করে বাংলার দিকে ছুটে আসছে উত্তুরে হাওয়া। শীতের আগমনে গরম পোশাকের ওম নিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে বঙ্গবাসী।