Mamata Banerjee: করোনায় আক্রান্তকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির
Mamata Banerjee (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ২৭ এপ্রিল: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে বাড়িতে থাকার পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির। বাড়িতে থাকলে হাসপাতালের তুলনায় মানুষ আগে সুস্থ হয়। তাই কেউ যদি মনে করেন যে সে হাসপাতালে না থেকে বাড়িতে চিকিৎসা করাতে পারেন, তাহলে রোগী দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। এই সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, 'এমনিতেই সরকারের একটি সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তাই লক্ষ লক্ষ লোককে কোয়ারেন্টাইনে রাখা যায়না। আর মানুষ নিজের বাড়িতে থাকলে, অনেক ভাল থাকবেন তাঁরা।'

মমতা ব্যানার্জির কথায়, 'যাদের নিজেদের বাড়িতে জায়গা রয়েছে। তাদের মধ্যে যদি কেউ করোনায় আক্রান্ত হন। তাহলে তাঁরা বাড়িতেই থাকতে পারেন। কারণ হাসপাতালে আসলে সেখানে একাধিক রোগী থাকেন। অন্য রোগে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে হাসপাতালে এলে। সেক্ষেত্রে কোনও রোগী যদি মনে করেন, বাড়িতে থেকেই তাঁরা চিকিৎসা করাবেন। তাহলে সেটি তাঁরা করতে পারেন।' তিনি আরও বলেন, সেল্ফ আইসোলেশনের এই তত্ত্ব অনেক দেশই অনুসরণ করে চলছে এবং তাঁরা সুফল পেয়েছে। সেই কারণেই বাড়িতে থেকে করোনাভাইরাসের চিকিৎসার পরামর্শ দিলেন মমতা। আরও পড়ুন: Kolkata: সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংকে থোড়াই কেয়ার, হটস্পট রাজাবাজারে উপচে পড়ছে ভিড় 

যদিও মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির এই মন্তব্যের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। লকডাউন মানা হচ্ছে না রাজ্যের একাধিক জায়গায়। খবরের দিকে নজর রাখলে প্রতিদিনই এই খবর ভেসে উঠছে চোখের সামনে। এত কঠোর নিয়ম স্বত্ত্বেও লকডাউনের নীতি-নির্দেশিকা অমান্য করছেন অনেকেই। সেক্ষেত্রে করোনা-আক্রান্ত কোনও রোগী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশ মত বাড়িতে সেল্ফ আইসোলেশনে কী আদৌ থাকবেন? সেটি নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সেক্ষেত্রে এই পরিস্থিতি আরও ভয়ঙ্কর আকার নিতে পারে বলে আশঙ্কা নেটিজেনদের।