Kolkata: সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংকে থোড়াই কেয়ার, হটস্পট রাজাবাজারে উপচে পড়ছে ভিড়
Photo: ANI/Twitter

কলকাতা, ২৭ এপ্রিল: রাজাবাজার (Raja Bazaar), মানিকতলা, নারকেলডাঙা- সহ কাকুরগাছি। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ (Coronavirus Spred) রুখতে করোনা হটস্পট তকমা দেওয়া হয়েছে এই এলাকাগুলিকে। বাড়তি নজরদারিতে রয়েছে এই এলাকাগুলি। দিন দুয়েক আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) এলাকায় এসে গাড়িতে করে মাইকিং করেছেন। সকলকে বাড়িতে থাকার আর্জি জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু কে শোনে কার কথা! কেন্দ্রের আন্ত:মন্ত্রক দল পর্যবেক্ষণ করে রাজ্য ছাড়তেই ফের বেনিয়ম শহরের রাস্তায়। রাজাবাজারের রাস্তায় ভিড়ে একাকার।

সোমবার সকালে এমনই দৃশ্য চোখে পড়ল রাজাবাজারের রাস্তায়। হটস্পটে অতিরিক্ত নজরদারির নির্দেশ রয়েছে। নীতি-নির্দেশিকায় রয়েছে, হটস্পট এলাকাগুলিতে টহল দেবে পুলিশ। কিন্তু হটস্পট রাজাবাজারে কোথায় পুলিশ? নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকানে ভিড়ে একাকার। সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং কিংবা সামাজিক দূরত্ব এই শব্দগুলো এখানে অর্থবিহীন। রাস্তায় রাস্তায় ব্যারিকেড থাকলেও পাহাড়ায় নেই কোনও পুলিশ। আরও পড়ুন: Puri Rath yatra: ২৮৪ বছরের প্রথা ভাঙল, এবছর হবে না পুরীর রথযাত্রা

 কেন্দ্রের চিঠিতেও রাজাবাজারের উল্লেখ ছিল। শহরের হটস্পট এলাকাগুলিতে একেবারেই মানা হচ্ছে না সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং। সেই নিয়ে মুখ্যসচিবকে যে চিঠি লেখা হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে। সেই চিঠিতেও এই অভিযোগ আনা হয়। সেই চিঠির পর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল ঠিকই। ব্যারিকেড দিয়ে দেওয়া হয়। মাইকিং করে সামাজিক দূরত্বের পাঠ দেওয়া হয়। কিন্তু পর্যবেক্ষকদের দল শহর ছেড়ে যেতেই ফের নিয়মের লঙ্ঘন।