East-West Metro Railway: ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোরেলের কাজের উপর থেকে উঠল না স্থগিতাদেশ,  আপাতত বন্ধই থাকবে কাজ জানায় হাইকোর্ট
কলকাতা মেট্রো (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ৮ নভেম্বর: ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোরেলের (East West Metro Railway) কাজের উপর থেকে হাইকোর্ট (High Court) তুলল না স্থগিতাদেশ (Stay Order)। আপাতত বন্ধ ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ। আগামী সপ্তাহে ফের তলব করা হল বিশেষজ্ঞ কমিটির রিপোর্ট। তাই আপাতত বন্ধ থাকছে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ। সেপ্টেম্বরের ১৭ তারিখ হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল, ৭ নভেম্বর পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ বন্ধ থাকবে। প্রধান বিচারপতি টি বি রাধাকৃষ্ণণ (T B Radhakrishnan) ও অরিজিৎ ব্যানার্জি  (Arijit Banerjee) ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ ছিল মেট্রোরেল (Metro Rail) কর্তৃপক্ষকে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে বর্তমান পরিস্থিতি। পাশাপাশি রাজ্যের ডিজ়াস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি (Disaster Management Authority) বউবাজার (Bou Bazar) এলাকায় স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে কী ব্যবস্থা নিয়েছে সেই ব্যাপারেও রাজ্যের কাছে হলফনামা চাওয়া হয়।

ইটিভি ভারতের খবর অনুযায়ী, আজ মামলার শুনানিতে উভয় পক্ষই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ করে। মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের তরফে আইনজীবী জিষ্ণু সাহা বলেন, "এখনও অন্তিম মূল্যায়নের কাজ চলছে। বিশেষজ্ঞরা এখনও ওই জায়গার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছেন ৷ তবে দুর্ঘটনার পর ওই এলাকার বাসিন্দাদের জন্য যা যা করার দরকার, সব হয়েছে । ওই জায়গায় পাশাপাশি দুটি টানেল বোরিং মেশিন কাজ করছিল। দুর্ঘটনা ঘটেছিল প্রথমটিতে। দ্বিতীয়টি প্রথমটির থেকে অনেক পিছনে রয়েছে। কিন্তু ওই মেশিনটির কিছু রিপেয়ারিং প্রয়োজন। তার জন্য পাঁচ মিটার মতো জায়গা খুঁড়লে হয়ে যাবে। এটাই আমাদের আবেদন ৷"

আরও পড়ুন, 'বুলবুল' মোকাবিলায় তত্‍‌পরতা সুন্দরবনে, প্রশাসনিক উদ্যোগে খুলল কন্ট্রোলরুম

অন্যদিকে, মামলাকারীদের তরফে আইনজীবী সপ্তাংশু বসু বলেন, "ওখানে যে কোনও ধরনের কাজ করার জন্য আগে বিশেষজ্ঞ কমিটির পরামর্শ নিতে হবে । তারপর কোর্টকে সেটা জানাতে হবে। কোর্ট যদি সম্মতি দেয় তাহলে সেই কাজ করতে পারে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ ।"এরপরই প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, বিষয়টি যেহেতু প্রযুক্তি ও বিজ্ঞান নির্ভর, তাই বিশেষজ্ঞ কমিটির পরামর্শ বা রিপোর্ট ছাড়া আমরা কিছুই বলতে পারি না । আগামী শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) কলকাতা মেট্রোরেলকে রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে এই ব্যাপারে । আপাতত মেট্রোরেলের কাজ যেমন বন্ধ ছিল তেমন বন্ধই থাকবে।