Fact Check: ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়ের করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের ভাইরাল ছবি ভুয়ো; জানুন আসল সত্যি
(Photo Credit: Video grab)

মঙ্গলবার বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের (Corona Vaccine) ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)। প্রথম টিকা গ্রহণ করেছেন তাঁর এক মেয়ে, জানান পুতিন। এরপরই একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতে দেখা যায়। যেখানে বলা হয়, পুতিনের মেয়ে করোনার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন। পরে জানান যায়, ভিডিওটি ভুয়ো।

এটি ২৬ জুন, ২০২০-র একটি পুরোনো ভিডিও। ভারতীয় একটি নিউজ চ্যানেল যা পুতিনের মেয়ে বলে বিদেশি প্রকাশ করে। তারপর থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করত থাকে নেটিজেনরা। প্রায় হাজার হাজার শেয়ার হয় এই পোস্টটি। জনগন বিভ্রান্তির শিকার হচ্চ্ছে। তাই জানানো হচ্ছে, এই ভিডিওটি সম্পূর্ণ ভুল খবর। পুতিনের মেয়ের ভ্যাকসিন নেওয়ার ছবি এখনও প্রকাশ্যে আসেনি। আরও পড়ুন, বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের ঘোষণা রাশিয়ার, প্রথম টিকাগ্রহণ করলেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়ে

গতকাল সফলতার সঙ্গে ভ্যাকসিনের উদ্বোধন করে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে পুতিন জানিয়েছেন, "আজ সকালে বিশ্বের প্রথম দেশে তৈরি করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের নথিভুক্তিকরণ করা হল। " প্রথম টিকাটি তাঁর এক মেয়েকে দেওয়া হয়, সে ভাল আছে বলেও জানান তিনি। জানা গেছে, প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষক ও আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে এমন পেশার সঙ্গে যুক্তদের এই টিকা দেওয়া হবে। তারপর সাধারণ মানুষের শরীরে এর প্রয়োগ করা হবে। ত ১৭ জুন ৭৬ জন স্বেচ্ছাসেবকের ওপর পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হয় প্রথমবার। তবে এই পরীক্ষার তিনটি পর্যায় রয়েছে, যা সেই থেকে চলছে। গামালেয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট অর্থাৎ যেখানে ভ্যাকসিন গবেষণা চলছে তারই ডিরেক্টর অ্যালেক্সেন্ডার গিন্টসবার্গ জানাচ্ছেন, অ্যাডিনো ভাইরাসের ভিত্তিতে তৈরি নির্জীব কণা ব্যবহার করবে এই টিকা৷