Maharashtra Deadlock: চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে সময় চাই, সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বললেন শরদ পাওয়ার
শরদ পাওয়ার ও সোনিয়া গান্ধী (PTI)

নতুন দিল্লি, ১৮ নভেম্বরশিবসেনার (Shiv Sena) সঙ্গে কংগ্রেস (Congress) ও এনসিপির(NCP) জোট তথা মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন এখনও বিশবাঁও জলে। ফের একপ্রস্থ আলোচনার জন্য সোমবার সকাল সকাল দিল্লি পৌঁছালেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার (Sharad Pawar)। তিনি বৈঠকে বসবেন কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর (Sonia Gandhi) সঙ্গে। দিনভর রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পরেও মিলল না কোনও সমাধান সূ্ত্র। শরদ পাওয়ার মুম্বই ফেরার আগে জানিয়ে গেলেন এখন মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তে আসা সম্ভব হয়নি। এজন্য এখনও আলোচনা ও বিচার বিশ্লেষণ ও সময় দরকার। হুট বলতেই মতাদর্শ বিরেধী জোটের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সরকার গড়া যায় না। তবে এই সরকার গঠনের প্রক্রিয়াকে তরাণ্বিত করতেই দিল্লিতে এনসিপি ও কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা বৈঠকে বসবেন।

এদিন সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকে মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে একটি পর্যালোচনা মূলক বক্তব্য রাখেন শরদ পাওয়ার। বৈঠকের পরে রণদীপ সিং সূরযেওয়ালা জানান, এখনই কিছু ঠিক হয়নি। দিন দুয়েকের মধ্যে দুই রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা রাজধানীতে একটি বৈঠকে যোগ দিতে চলেছেন। সেই বৈঠকেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা রয়েছে। চলতি সপ্তাহে যখন মহারাষ্ট্রে সরকার গডতে সমস্ত রাজনৈতিক দলই ব্যর্থ হল তখন সেখানে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হল। বিজেপি ২৮৮-র মধ্যে ১০৫টি আসনে জয়ী হয়েও শরিক শিবসেনাকে তুষ্ট করতে পারেনি। শিবসেনা আড়াই বছরের মুখ্যমন্ত্রীত্ব দাবি করেছিল। সেই দাবি মানতে নারাজ বিজেপি। তবে সিদ্ধান্ত থেকে পিছুও হটবে না শিবসেনা। বাধ্য হয়েই জোট ভেঙে বেরিয়ে আসেন দেবেন্দ্র ফডনবিশ। তারপর বাধ্য হয়েই এনসিপির সঙ্গে জোটে যেতে চায় শিবসেনা, তবে তাতেও ম্যাজিক ফিগার তৈরি না হওয়ায় কংগ্রেসের সাহচর্য দরকার ছিল। সেই সময় কংগ্রেস রাতারাতি হ্যাঁ না বলায় শিবসেনার সরকার গঠনের সুযোগ হাতছাড়া হয়। আরও পড়ুন-TMC MP Nusrat Jahan: ‘ভাল আছি’, হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন নুসরত জাহান

গত ১২ তারিখে মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হয়েছে। রাজ্যপাল নিজে সেখানকার রাজনৈতিক দলগুলির পরিস্থিতি বিবেচনা করে রাষ্ট্রপতি রিপোর্ট করেছিলেন। সেই সঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশও করেন। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টে যায় শিবসেনা। এখনও তারা সরকার গঠনের আশায় রয়েছেন। কংগ্রেস এনসিপি একবার হ্যাঁ বললেই উদ্ধব ঠাকরেরে মুখ্যমন্ত্রী করে উৎসব শুরু হবে দেশের বাণিজ্য নগরীতে। তবে এনসিপি কংগ্রেসের সমর্থনই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।