COVID-19 Vaccine Update: এবার ভারতে শুরু রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন স্পুটনিক ভি-এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ৮ সেপ্টেম্বর:  এবার ভারতেও শুরু হবে রাশিয়ার করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন স্পুটনিক ভি-এর (Sputnik V) পরীক্ষামূলক প্রয়োগ। চলতি মাসে যাতে এই পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হতে পারে তানিয়ে ইতিমধ্যেই ভারতের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছে রাশিয়া। মস্কোর এক সংবাদ মাধ্যমে একথাই জানিয়েছেন সেদেশের সরকারি কর্তাব্যক্তিরা। স্পুটনিক ভি-এর চূড়ান্ত পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগে ভারত ছাড়াও আরও চারটি দেশকে নির্বাচিত করেছে রাশিয়া। পরীক্ষামূলক প্রয়োগে সফলতা এলে ভ্যাকসিনের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়বে আশা করা যায়। কেননা ইউরোপ ও আমেরিকা মহাদেশের তরফে রাশিয়ার স্পুটনিক ভি করোনা ভ্যাকসিনের সফলতা নিয়ে আগেই সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে। ভারত ছাড়াও তালিকায় কারা আর চারটি দেশ হল, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমীরশাহি, ফিলিপিন্স ও ব্রাজিল।

ব্রাজিল ও ভারতে এই চলতি মাস অর্থাৎ সেপ্টেম্বরেই শুরু হচ্ছে স্পুটনিক ভি-এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সিএনবিসিটিভি ১৮-এর সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে দিমিত্রিভ বলেন, এই পরীক্ষামূলক প্রয়োগ নিয়ে মস্কোর সঙ্গে নতুন দিল্লির কর্তাদের বার্তালাপ আগেই হয়ে গেছে। চলতি বছরের নবেম্বরেই ভ্যাকসিন বাজারে আনার আশা প্রকাশ করেছে রাশিয়া। শুধু ভারতেই স্পুটনিক ভি-এর ৩০ কোটি ডোজ তৈরি হবে। আইকনিক সোভিয়েত জমানার মহাকাশ গবেষণাকে স্মরণ করেই রাশিয়া করোনা ভ্যাকসিনের নাম রেখেছে স্পুটনিক ভি। আরও পড়ুন-Xi Jinping: বিশ্বজুড়ে লাখো মানুষের প্রাণ বাঁচাতে করোনাকালে স্বচ্ছতা বজায় রেখেছে চিন, বললেন শি জিনপিং

গত ১ আগস্ট এই ভ্যাকসিনের খবর প্রকাশ্যে আনে রাশিয়া। এরপর প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেন যে তাঁর দুই মেয়ের মধ্যে একজনের শরীরে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হয়েছে। রাশিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ও মস্কোর গামালিয়া ইনস্টিটিউটের যৌথ উদ্যোগেই এই সিলভার বুলেট তৈরি হয়েছে। তবে রাশিয়া যতই করোনা ভ্যাকসিন হিসেবে স্পুটনিক ভি-এর নাম প্রচার শুরু করুক না কেন এখনও পর্যন্ত দ্বিতীয় ও চতুর্থ পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ সম্পূর্ণ হয়নি। বলা বাহুল্য, তার আগেই স্পুটনিক ভি নিয়ে রাশিয়ার মাতামাতির তীব্র সমালোচনা করেছে ইংল্যান্ড। মূলত ইংল্যান্ডের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্যোগে তৈরি হওয়া করোনা ভ্যাকসিন কোভিশিল্ড সমস্ত নিরাপত্তা বলয়ের গণ্ডী সসম্মানে উত্তীর্ণ হলে অক্টোবরের শেষেই বাজারে আসবে।