Rahul Gandhi: গলওয়ান ভ্যালিতে চিনা আগ্রাসনের তথ্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েবসাইট থেকে উধাও, মোদি সরকারকে তোপ রাহুল গান্ধির
File image of Congress leader Rahul Gandhi | (Photo Credits: IANS)

নয়াদিল্লি, ৬ অগাস্ট: ২০২০ সালের মে মাসের শুরুর দিক থেকে লাইন অফ অ্যাকচুয়াল (LAC) কন্ট্রোল বরাবর চিনা আগ্রাসন। গালওয়ান (Galwan Valley) এলাকায় চিনা সেনার উপস্থিতি ঘিরে উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নথিতে বলা হয়েছিল, দেশের মাটিতে লাল ফৌজ অনধিকার প্রবেশ করেছে ৷ লাদাখ কাণ্ডের ৩ মাস পর এই নথিটি প্রকাশিত হয়৷ তবে এই তথ্য আপলোডের দু’দিনের মাথায় তা নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট থেকে উধাও হয়ে যায়। কিন্তু এখন সেই নির্দিষ্ট কিংবা URL-টির কোনও হদিশই নেই। এই বিষয়টি নিয়ে মোদি সরকারকে একহাত নিলেন রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi)। টুইটে তিনি দাবি করেন, চিনের নাম নেওয়ার সাহস নেই নরেন্দ্র মোদির। চিনা সেনার আগ্রাসনের তথ্য ডিলিট করে দিলেও সত্য ঘটনার কোনও পরিবর্তন হবে না।

রাহুল গান্ধি একটি নিউজ রিপোর্ট নিয়ে টুইট করেন। টুইটে তথ্য ডিলিটের জন্য মোদি সরকারকেই দায়ী করেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি। পাশাপাশি, যে নিউজ রিপোর্টটি নিয়ে তিনি টুইট করেছেন, সেই রিপোর্টেও এই দাবিই করা হয়েছে। যেখানে লেখা হয়েছিল, এলএসি সীমান্ত পেরিয়ে গলওয়ান ভ্যালিতে লাল ফৌজের অনুপ্রবেশ।

নথিতে বলা হয়েছিল, চলতি বছরের ৫ মে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে গলওয়ান ভ্যালিতে চিনা আগ্রাসনের গতিবিধি নজরে এসেছে। ১৭-১৮ মে চিনের দিক থেকে কুংরং নালা, গোগরা ও প্যাংগং তসো হৃদের উত্তর প্রান্তে সীমান্ত লঙ্ঘন করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েব সাইটে নতুন বিভাগ 'এলএসিতে চিনা আগ্রাসন' শিরোনামে একটি নথিতে এই দাবি করা হয়েছিল। পাশাপাশি দু'দেশের মধ্যে সামরিক পর্যায়ে কথাবার্তা চলছে, সেই সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য লেখা ছিল। তবে এই নথিটি পুরোপুরিই ডিলিট করা হয়েছে বলে দাবি।