Taliban: আফগানিদের সাহায্যে সীমান্ত খোলা রাখুন, আফগানিস্তানের পড়শি দেশগুলির কাছে আবেদন রাষ্ট্রসংঘের
ছবি সংগৃহীত

কাবুল, ২০ অগাস্ট: তালিবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখলের পর থেকে বহু মানুষ ভিটেমাটি ছেড়ে পালাতে শুরু করেছেন৷ বিশেষ করে মহলিা এবং শিশু৷ বৃহস্পতিবারও আফগানিস্তান থেকে প্রায় ৩ হাজার মানুষকে দেশ ছাড়তে সাহায্য করেছে মার্কিন সেনা৷ গত ১৪ অগাস্ট থেকে এই পর্যন্ত আফগানিস্তান (Afghanistan) থেকে কমপক্ষে ৯ হাজার মানুষকে সরানো হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে৷

তালিবানের শাসনে যাঁরা থাকতে চান না, তাঁরা যাতে পড়শি দেশগুলিতে যেতে পারেন, তার জন্য সীমান্ত খোলা রাখুন৷ আফগানিস্তানের মানুষকে সাহায্য করুন৷ আফগানিস্তানের পড়শি দেশগুলির কাছে সীমান্ত উন্মুক্ত রাখার আবেদন করা হল রাষ্ট্রসংঘের তরফে৷ মানবিকতার খাতিরেই এই কাজ করতে হবে বলে আহ্বান জানানো হয় রাষ্ট্রসংঘের (UN) তরফে৷

আরও পড়ুন: Afghanistan: মার্কিন বাহিনী বা ন্যাটোর সঙ্গে যুক্ত? বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি তালিবানের, আশঙ্কায় মানুষ

আফগানিস্তানে তালিবান দখলদারি শুরু হওয়ার পর প্রতিদিন সেখান থেকে অনেকে দেশ ছাড়তে পারছেন না৷  ফলে আফগানিস্তানের মানুষকে সাহায্য করতে পড়শি দেশগুলি যাতে সীমান্ত উন্মুক্ত রাখে, সেই আবেদন জানানো হয় রাষ্ট্রসংঘের তরফে৷

এদিকে নয়ের দশকের তালিবানের (Taliban) সঙ্গে বর্তমান সংগঠনের অনেক পার্যক্য রয়েছে বলে বার বার দাবি করা হলেও, বাস্তব ছবিটা একেবারেই অন্যরকম৷ আফগানিস্তান দখলের পর তালিবান সে দেশের প্রত্যেক বাড়িতে গিয়ে খোঁজ করতে শুরু করেছে কেউ মার্কিন (US) বা ন্যাটো (NATO) বাহিনীর সঙ্গে যুক্ত রয়েছে কি না৷ ফলে ভয়ে, আশঙ্কায় ভুগতে শুরু করেছেন সে দেশের মানুষ৷