COVID-19: করোনাভাইরাসের মারণ কামড়ে ত্রস্ত পাকিস্তান, সংক্রমণ প্রতিরোধে ইরান সীমান্ত সিল করল
ইমরান খান(Photo Credit: Facebook)

ইসলামাবাদ, ২৪ ফেব্রুয়ারি: করোনাভাইরাসের (coronavirus) আতঙ্কে এবার কাঁটা পাকিস্তান। পার্শ্ববর্তী দেশ ইরানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ইতিমধ্যেই আটজনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই পাকিস্তান ইরান সীমান্ত সিল করে দিল ইসলামাবাদ। রবিবার এক বিবৃতিতে মেডিক্যাল এমার্জেন্সির প্রসঙ্গ টেনে দেশবাসী তা জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। এই মারণ রোগে চিনে ইতিমধ্যেই ২ হাজার ৪৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানকার ৩১টি প্রদেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬ হাজার ৯৩৬ জন। কেউ কেউ এই মারণ রোগের প্রভাবকে বায়ো সন্ত্রাসও বলছেন। সে যাইহোক, পরিস্থিতি বিবেচনা করে বালোচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মীল জিয়াউল্লাহ ল্যাঙ্গোভ জানিয়েছেন, আপাতত বালোচ প্রদেশে ইরান পাকিস্তান সীমান্ত সিল করা হয়েছে।

তিনি বলেন, “করোনাভাইরাসের প্রাবল্যে বিশ্বজুড়ে মৃত্যু মিছিল চলেছে। সেই করোনা আতঙ্ক কমাতেই সাময়িকবাবে ইরান পাকিস্তান সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হল। ইতিমধ্যেই বালোচিস্তানের সীমান্ত শহর তাফতানে একটি অস্থায়ী হাসপাতাল তৈরি হয়েছে। তাঁবু চলবে এই হাসপাতাল, সেখানে রয়েছে ১০০ বেড। মূলত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত পরিস্থিতি সামাল দিতেই বিপর্যয় মোকাবিল দপ্তর এই উদ্যোগ নিয়েছে। যাঁরাই সীমান্ত পেরিয়ে ইরান থেকে পাকিস্তানে ঢুকছেন, তাঁদের প্রত্যেকেরই স্ক্রিনিং করা চলছে। এই পরিস্থিতিতে সড়ক পথে পাকিস্তান থেকে ইরানে বা ইরান থেকে পাকিস্তানে তীর্থযাত্রী যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ইসলামাবাদ।” আরও পড়ুন-Ivanka Trump: ভারত সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রতিনিধি দলে থাকছেন মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প, কেন জানেন?

উল্লেখ্য, প্রতিবছর পাকিস্তান থেকে শিয়া সম্প্রদায়ের এক বড় অংশের মানুষ ইরানে তীর্থভ্রমণে যান। বালোচিস্তানের পাঁচটি জেলা যথাক্রমে গোয়দার, কেচ, পাঞ্চগুর, ওয়াশুক ও চেঘির অবস্থানে একবারে ইরান সীমান্ত লাগোয়া। তাই যাঁরাই আইনিপথে ইরান সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে ঢোকেন তাঁরা চেঘি জেলার তাফতান শহরেই প্রথমে আসেন।