Winter In West Bengal: মরশুমের শীতলতম দিনে কম্পমান কলকাতা, ৫ জেলায় শৈত্যপ্রবাহের আভাস
প্রতীকী ছবি (Representational Image Only)

কলকাতা, ২১ ডিসেম্বর: ২০২০-র শীতলতম দিনটি চাক্ষুষ (Winter In West Bengal) করল কলকাতা। রাজ্যে প্রবেশের ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই বঙ্গবাসীকে সমূলে কাঁপিয়ে দিয়েছে এই মরশুমের শীত। করোনা কালে শীতের আগমনে স্বস্তির শ্বাস চতুর্দিকে। সমস্ত আতঙ্ক ভুলে বছরের শেষদিকে উদযাপনে মেতেছে বাঙালি। বড়দিনের আগে শীত পড়ায় চিড়িয়াখানা, নিকো পার্ক, ইকো পার্ক, সায়েন্স সিটি-সহ দর্শনীয়স্থানগুলিতে উপচে পড়ছে ভিড়। ময়দানে চত্বরে এদিক সেদিক ঘুরতেই চড়ুইভাতির ছবিও ধরা পড়ছে। পার্ক স্ট্রিট, সদর স্ট্রিট এলাকায় বিদেশি পর্যটকদের আনাগোনাও বেড়ে গিয়েছে। আলিপুরের হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সোমবার কলকাতায় ৪ ডিগ্রি পারদ পতনে জনজমাট শীত। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১০ ডিগ্রিতে ঘোরাফেরা করছে দিঘা। আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: গত ১ মাসে নতুন রোগী ১০ লাখ, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো কোটির গণ্ডী

তবে কলকাতা একা নয়, উত্তরের পাহাড়ের রানি দার্জিলিংয়ের তাপমাত্রা রাজ্যে সবথেকে বেশি নেমেছে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কালিম্পংয়ে ৭.৫ ও শিলিগুড়িতে ৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছে পারদ। জলপাইগুড়িতে ৮.৯ ডিগ্রি, বালুরঘাটে ১০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পানাগড়ে ৭ ডিগ্রি। আসানসোলে ৯.৯ ডিগ্রি। দিঘায় ১০.৩ ডিগ্রি। বারাকপুরে ৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয় বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯৫ শতাংশ। সর্বনিম্ন ৪২ শতাংশ। আলিপুরের হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী এখন রাজ্যে কোনওরকম বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে পাঁচটি জেলায় শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। কলকাতাতেই পর্যটকরা ভিড় জমিয়েছেন এমন নয়, দিঘার সমুদ্র সৈকতে উপচে পড়েছে ভিড়। রাজ্য সবথেকে বেসি পর্যটক সমাগম হয়েছে দার্জিলিংয়ে। তালিকায় রয়েছে শান্তিনিকেতনও।

জানা গিয়েছে, মাঠে নেমে শুধু ওভার বাউন্ডারিই নয়, উত্তুরে হাওয়া যতক্ষণ হু হু করে রাজ্যে প্রবেশ করছে ততক্ষণ লম্বা ইনিংস খেলে যাবে শীত। তাই ঠান্ডার কনকনানি সঙ্গে নিয়েই গরম পোশাকে মুড়েছে গোটা রাজ্য।