Mahua Moitra: মহুয়া মৈত্রকে অক্সিজেন তৃণমূলের, দলে গুরুদায়িত্ব দিয়ে কৃষ্ণনগর থেকে ফের টিকিট দেওয়ার জোরাল ইঙ্গিত
Mohua Moitra (Photo Credit: Twitter)

সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra)-কে অক্সিজেন দিল তৃণমূল (TMC)। অর্থের বিনিময় সংসদে প্রশ্ন কাণ্ডে নির্বাসিত হওয়ার মুখে তৃণমূলের সাংসদ মহুয়া মৈত্র। মহুয়ার পিছনে সেভাবে পাশে দাঁড়াতে দেখা যায়নি তৃণমূল। তখন অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন তাঁকে আর আগামী লোকসভায় দাঁড় করাবেন না দলেনত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। সুবক্তা হলেও মহুয়ার বিরুদ্ধে কৃষ্ণনগরের রাজনীতিতে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে মদত দেওয়ার অভিযোগ ছিল। মহুয়ার ব্যবহারে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশও ক্ষুব্ধ ছিল। তাই মনে করা হচ্ছিল, প্রশ্নের বিনিময়ে ঘুষ কাণ্ডের পর আর তৃণমূলের টিকিট পাবেন না মহুয়া।

কিন্তু সংসদে মোদী সরকারকে বাক্যবাণে চাপে রাখা মহুয়ার পাশে দাঁড়ালেন মমতা, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মহুয়াকে কৃষ্ণনগর (নদিয়া উত্তর)-এর দলীয় জেলা সভাপতি নিযুক্ত করল তৃণমূল। নদিয়া জেলা তৃণমূলের একাংশের বিরোধিতা অগ্রাহ্য করে কৃষ্ণনগরে মহুয়াতেই বাজি ধরছেন দিদি। মমতার এই সিদ্ধান্তেই জোরালো ইঙ্গিত থাকল তাঁকেই ফের লোকসভায় প্রার্থী করতে চলেছে দল। তবে এখনও লোকসভার প্রার্থী ঘোষণা হতে বেশ কিছু মাস বাকি। তাঁর আগে জেলা সভাপতি হয়ে দলকে কৃষ্ণনগরে কতটা মজবুত করতে পারেন মহুয়া, তার ওপরে নির্ভর করছে অনেক কিছু। আরও পড়ুন-দীপাবলির উৎসবের মাঝে জয়নগরে জোড়া খুন, অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি

দেখুন দলকে ধন্যবাদ জানিয়ে মহুয়ার টুইট

২০১৯ লোকসভায় তাপস পালের পরিবর্তে কৃষ্ণনগর লোকসভায় মহুয়াকে প্রার্থী করে তৃণমূল। বিজেপির কল্যাণ চৌবে-কে প্রায় ৬৩ হাজার ভোটে হারিয়ে প্রথমবার সাংসদ হয়েছিল মহুয়া। লোকসভায় শুরু থেকেই বাক্যবাণে বিজেপিকে কোণঠাসা করতে থাকেন তিনি। পুরস্কারস্বরূপ মমতা তাঁকে সংগঠনে বড় দায়িত্ব দিতে থাকেন। কিন্তু দলীয় সংগঠনে সেভাবে সুবিধা করতে পারেননি সুন্দর ইংরেজি বলতে পারে মহুয়া। গোয়া বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল তাঁর ওপর অনেক ভরসা করলেও মহুয়া পুরোপুরি ব্য়র্থ হয়েছিলেন। আদানি ইস্যুতে মোদী সরকারকে দারুণভাবে চাপে রাখলেও শেষ অবধি অর্থের বিনিময়ে প্রশ্ন কাণ্ডে জড়িয়ে এথিক্স কমিটি মহুয়ার সাংসদ পদ খারিজ করতে চলেছে। তবে মহুয়া খুব সম্ভবত ফের সুযোগ দিতে চলেছে দল।