Jaynagar TMC Leader Murder: দীপাবলির উৎসবের মাঝে জয়নগরে জোড়া খুন, অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি
প্রতীকী ছবি (Photo: Pixabay)

জয়নগর, ১৩ নভেম্বরঃ দীপাবলির উৎসবের মাঝে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি দক্ষিণ ২৪ পরগণার জয়নগরে। কালীপুজোর পরের দিন অর্থাৎ সোমবার সকালে তৃণমূল নেতাকে গুলি করে খুনের অভিযোগ (Jaynagar TMC Leader Murder)। মসজিদে যাওয়ার পথে তৃণমূল নেতার উপর দুষ্কৃতীরা হামলা করে। গোলাগুলিতে মৃত্যু হয় গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য সইফুদ্দিন লস্করের।

আরও পড়ুনঃ রাস্তায় বাজি ফাটাতে গিয়ে দুর্ভোগ, দ্রুত গতির গাড়ির ধাক্কায় জীবন-মৃত্যুর লড়াই বৃদ্ধের

কালীপুজোর পরের সকালেই দক্ষিণ ২৪ পরগণার জয়নগর থানা এলাকার বামনগাছি গ্রামে ঘটে গেল গোলাগুলি। ইতিমধ্যেই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা যাচ্ছে, বছর ৪৩ এর সইফুদ্দিন লস্কর ওই গ্রামের গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য ছিলেন। এছাড়াও তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতির দায়িত্বও সামলাতেন। সোমবার ভোরের দিকে নমাজ পড়তে মসজিদে যাচ্ছিলেন সইফুদ্দিন। পথের তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। গুলির আওয়াজ পাওয়া মাত্রই ছুটে আসেন স্থানীয়রা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

আরও পড়ুনঃ দীপাবলির রাতে পথের বলি ৩, পুলিশ আধিকারিকের গাড়ির সঙ্গে ধাক্কায় মৃত্যু বাইক আরহীর

তৃণমূল গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য খুনের পর থেকেই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বামনগাছি গ্রামে। এরই মধ্যে অভিযুক্তদের একজনকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত জেরায় স্বীকার করেছে,  তিনি খুন করেছেন। সোমবার জোড়া খুনের ঘটনায় অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি জয়নগরে। আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে বেশ কয়েকটি বাড়িতে। মৃতের পরিবারের দাবি, বিজেপি এবং সিপিএমের পোষা দুষ্কৃতীরাই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে।