জাগুয়ার দুর্ঘটনা কাণ্ডে নয়া মোড়: আরসালানা পারভেজ নন, সেই রাতে ঘাতক গাড়ির চালক ছিলেন তার দাদা রাঘিব
জাগুয়ার দুর্ঘটনা কাণ্ডে নয়া মোড়। Image used for representational purpose | (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ২১ অগাস্ট: Major twist in Kolkata's Jaguar car accident case: জাগুয়ার দুর্ঘটনা কাণ্ডে নয়া চাঞ্চল্যকর মোড়। এতদিন যাকে মানুষ মারা বেপোরায়া জাগুয়ারের চালক হিসেবে অভিযুক্ত করে গ্রেফতার করা হয়েছিল, সেই আরসালান পারভাজ সেদিন গাড়ি চালাচ্ছিলেন না। দুই বাংলাদেশী পথচারীর মৃত্যু ও মারুতিতে ধাক্কা কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত হিসেবে গ্রেফতার হওয়া আরসালান পারভেজের দাদা সেই রাতে জাগুয়ার চালাচ্ছিলেন। স্টিয়ারিং হাতে আরসালান নয়, ছিল রাঘিব। এমনকি গাড়িটিতেও আরসালান ছিলেন না ।

জয়েন্ট সিপি ক্রাইম জানান, সেই রাতে বেপরোয়া জাগুয়ারটি আরসালান পারভেজ নন, গাড়িটা চালাচ্ছিলেন তার দাদা রাঘিব পারভেজ। শুক্রবার রাতে দুর্ঘটনার পর দুবাইয়ে পালিয়ে গিয়েছিল রাঘিব। আজ বেনিয়াপুকুর থেকে গ্রেফতার করা হয় রাঘিবকে। সঙ্গে রাঘিকে পালাতে সাহায্য করার অভিযোগে তার তার মামা মহম্মদ হামজাকেও হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ ।

গত ১৬ অগাস্ট, শুক্রবার  রাত দুটো নাগাদ শহরের প্রাণকেন্দ্র শেক্সপিয়র সরণি এবং লাউডন স্ট্রিটের সংযোগস্থলে ঘটে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। লাউডন স্ট্রিটে বেপরোয়া জাগুয়ার (Jaguar car) মার্সিডিজকে ধাক্কার পর দুই বাংলাদেশি পথচারীকে পিষে মারে। দুর্ঘটনার রাতে রেসিং মোডে চলছিল ঘাতক জাগুয়ারটি। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম পুলিশের সঙ্গে কথা বলার পর প্রকাশ করে দুর্ঘটনার সময়ে গাড়ির গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার। লাউডন স্ট্রিটের রাস্তাতে যেখানে D অর্থাৎ ড্রাইভিং মোডেই গাড়ি চালানোর কথা সেখানে গাড়ি ছুটছিল অস্বাভাবিক গতিতে। ফলে সামনের মার্সিডিজ বেঞ্জে ধাক্কা মারে জাগুয়ারটি।