Ranbaxy Fraud Case: ৭৪০ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার নামি ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা র‌্যানব্যাক্সির প্রাক্তন মালিক শিভিন্দর সিং
Shivinder Singh and Sunil Godhwani (Photo Credits: Wikimedia Commons/ Twitter)

নতুন দিল্লি, ১১ অক্টোবর: ৭৪০ কোটি টাকা তছরুপের (Financial Scam) অভিযোগে নামি ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা (Medicine Company) র‍্যানব্যাক্সির (Ranbaxy) প্রাক্তন মালিক শিভিন্দর সিংকে (Formar Promoter) বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিশ (Delhi Police)। তার বিরুদ্ধে ৭৪০ কোটি টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ এনেছে Religare Enterprises নামে এক বহুজাতিক আর্থিক পরিষেবা সংস্থা। যে অভিযোগের ভিত্তিতে এদিন শিভিন্দরকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের আর্থিক অপরাধ শাখা (EOW)। শিভিন্দর ছাড়াও গ্রেফতার করা হয়েছে আরও তিনজনকে। ধৃত এই তিন জন হলেন Religare-এর প্রাক্তন সিইও কবি অরোরা, ম্যানেজিং ডিরেক্টর সুনীল গোধওয়ানি এবং অনীল সাক্সেনা। এছাড়া এই মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত মালবিন্দর সিংয়ের খোঁজ চালাচ্ছে EOW। উল্লেখ্য, মালবিন্দর হলেন সম্পর্কে শিভিন্দরের দাদা।

র‌্যানব্যাক্সি ছাড়াও ফর্টিস হেল্ফকেয়ারের (Fortis Health Care) নামে অপর একটি নামি চিকিৎসা সংস্থারও সহ প্রতিষ্ঠাতা এই শিভিন্দর সিং। জানা গিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরেই শিভিন্দর এবং মালবিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশের আর্থিক অপরাধ শাখায় অভিযোগ দায়ের করেছিল Religare নামে সংস্থাটি। প্রতারণা, জালিয়াতি এবং আর্থিক তছরুপের অভিযোগ আনা হয়েছিল তাঁদের বিরুদ্ধে। তাঁদের বিরুদ্ধে সব মিলিয়ে প্রায় ৭৪০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ আনে ওই সংস্থা। চলতি বছরের মে মাসে দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়। আরও পড়ুন: Narendra Modi-Xi Jinping Meet:প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করতে মহাবলীপুরমে আসছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং

জানা গিয়েছে, চলতি বছরের অগস্টে র‍্যানব্যাক্সির প্রাক্তন সিইও মালবিন্দর সিং এবং তাঁর ভাই শিবিন্দর সিংয়ের দিল্লির বাসভবনে (Home) অভিযান চালিয়েছিল এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ED)। তার আগে আর্থিক দুর্নীতি এবং ব্যাবসায় পতনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের বিরুদ্ধে আর্থিক তছরুপ প্রতিরোধ আইনে (PMLA) মামলা দায়ের করেছিল তদন্তকারী সংস্থা (Investigative Agency)।