Jammu and Kashmir: নিয়ন্ত্রণ রেখায় বিনা প্ররোচনায় গুলি বর্ষণ পাকিস্তানের, ক্ষতিগ্রস্ত সীমান্ত লাগোয়া কয়েকটি গ্রাম
(Photo Credits: ANI)

পুঞ্চ, ২১ সেপ্টেম্বর : ফের নিয়ন্ত্রণ রেখায় (LOC) বিনা প্ররোচনায় গুলি বর্ষণ পাকিস্তানের(Pakistan)। শনিবার কাশ্মীরের শাহপুর ও কের্নি সেক্টরে নিয়ন্ত্রণ রেখা (LOC) বরাবর যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালায় পাকিস্তানি সেনারা। সকাল ৯ টা ৪৫ মিনিটে তারা গুলি চালায়। পালটা জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনারাও(Indian army)। গতকাল মাঝরাতেও তারা পুঞ্চের মেন্ধার সাব ডিভিশনের বালাকোট সেক্টরে গুলি চালায়। জানা যাচ্ছে, গতকাল রাত ১২টা ৫ থেকে ১টা ৫০ পর্যন্ত তারা বালকোট সেক্টরে ভারতীয় সেনার ফরোয়ার্ড পোস্ট এবং সীমান্ত লাগোয়া গ্রামগুলিকে লক্ষ্য করে মর্টার ছোড়ে। এছাড়া গতকাল নওসেরা সেক্টরে রাত ৮টা থেকে ২ ঘণ্টা গুলি চালায় তারা। পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে সীমান্ত লাগোয়া গ্রামগুলির বেশ কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কয়েকটি গবাদি পশুরও মৃত্যু হয়েছে বলে খবর।

ভারতীয় সেনাবাহিনীও পালটা ও সম পরিমাণ জবাব দিয়েছে পাকিস্তানি সেনাদের। জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামগুলিতে গেছে। গত শনিবার সন্ধ্যায় বালাকোট গ্রামে ভারতীয় সেনা একটি মর্টার শেল নিষ্ক্রিয় করে। পাকিস্তানি রেঞ্জারদের ছোড়া ১২০ মিমি মর্টারটি উদ্ধার করে বালাকোটের (Balakote) বাসিন্দারা। আরও পড়ুন : Rajeev kumar: রাজীব কুমারের আগাম জামিনের শুনানি চলছে আলিপুর জেলা আদালতে

সেনাবাহিনীর কাছে প্রথমে মর্টার শেলের উপস্থিতির খবর আসে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় একটি দল, তাদের সঙ্গে শেল ডিসপোজাল টিমও ছিল। পরীক্ষা করে দেখা যায় প্রতিটি মর্টার শেল একেবারে তাজা, ফাটলে বড়সড় ক্ষতির সম্ভাবনা প্রবল ছিল। শেলগুলিকে নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। কারা কখন শেলগুলিকে এভাবে ফেলে গেল তার কোনও প্রমাণ না থাকলেও কারণটা বেশ স্পষ্ট। শেলগুলি নিষ্ক্রিয় করার পর জানা গিয়েছে, কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি।

চলতি সপ্তাহে এনিয়ে দুবার নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে তাজা মর্টার শেল (live mortar shell) পড়ে থাকতে দেখল ভারতীয় সেনা। ঘটনাস্থলও একই, তবে আগের বারের মর্টার শেলগুলি ছিল ১২০ মিমির। নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর পাকিস্তান যখন ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গোলাগুলি বর্ষণ শুরু করল, সেই ঘটনার কয়েক দিন পরেই প্রথম মর্টার শেলগুলি পুঞ্চের বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে পাওয়া যায়।