Hyderabad: হিন্দু ড্রাইভারকে কাঁধে চড়িয়ে অন্ত্যেষ্টি থেকে শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে সাহায্য করে বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের নজির গড়লেন পাঁচ মুসলিম ব্যক্তি
ছবিটি প্রতীকী

খাইরতাবাদ, ২০ এপ্রিল: মৃত হিন্দু অটো ড্রাইভারকে (Hindu Auto Driver) কাঁধে চড়িয়ে শ্মশানের উদ্দেশে শেষযাত্রা করালেন পাঁচ মুসলিম ব্যক্তি (Muslim Men)। টিবিতে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হলেও প্রতিবেশীরা তাঁর পরিবারের ওপর করোনায় মৃত বলেই দাবি করতে থাকে। ৫০ বছর বয়সী মৃত ওই ব্যক্তির নাম ভেনু মুদিরাজ। খাইরতাবাদের (Khairatabad) ওজিএইচ হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়।

দেহ হাসপাতাল থেকে নিয়ে আসার জন্য একাধিক কটূক্তির মধ্যে পড়তে হয় পরিবারকে। প্রতিবেশীদের দাবি তাঁর মৃত্যু করোনাভাইরাসে হয়েছে। এদিকে দেহ হাসপাতাল থেকে বাড়িতে আনতে দিতেও নারাজ প্রতিবেশীরা। ফলে কোনোরকমের সাহায্যের ধার ধারেননি তারা। আরও পড়ুন, রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯৮

মুদিরাজের ভাই জানিয়েছেন,"আমার ভাই যক্ষা রোগে ভুগছিলেন। এই লকডাউনের মধ্যে তাঁর শারীরিক অবনতি হতে শুরু করে। ভাইয়ের ছোট ছোট দুটি সন্তান রয়েছে এবং স্ত্রী কয়েকবছর আগেই প্রাণ হারান। ভাইয়ের মৃত্যুর পর কেউ সাহায্যের হাত বাড়ায়নি।" এমনকি তাঁরা মনে করছিলেন করোনায় মৃত্যু হয়েছে। শ্মশানে নিয়ে যাওয়ার মতো লোকও ছিল না।

এই অবস্থায় এলাকার এক সমাজকর্মী সাদিক বিন সালাম পরিবারের দাঁড়ান। মৃতের অন্ত্যেষ্টি থেকে শ্রাদ্ধের সমস্ত কাজের ব্যবস্থা করেন এই সমাজকর্মীও তাঁর চার বন্ধু: মহম্মদ মাজিদ, আব্দুল মুক্তাদির, মহম্মদ আহমেদ ও শেখ কাসিম। শ্রাদ্ধে উপস্থিত ছিলেন পরিবার হাতেগোনা কয়েকজন আত্মীয়স্বজন। বৈচিত্রের মধ্যে আরও একবার ঐক্যের নজির গড়লেন তাঁরা।