COVID-19 Vaccination Policy: চলতি বছরেই দেশের সব উপযুক্ত নাগরিকরা টিকা পাবেন, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল কেন্দ্র
ভ্যাকসিন (Photo credits: Flickr)

নতুন দিল্লি, ৩১ মে: চলতি বছরের শেষেই দেশের সব উপযুক্ত নাগরিকদের কোভিড টিকাকরণ করা হয়ে যাবে বলে সুপ্রিম কোর্টকে (Supreme Court) জানাল কেন্দ্রীয় সরকার। সোমবার সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রকে টিকাকরণ নীতি (COVID-19 Vaccination Policy) নিয়ে একাধিক কঠিন প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। তার মধ্যে একটা ছিল, দেশের শীর্ষ আদালত যখন কেন্দ্র করে প্রশ্ন করে প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষ যেখানে অনেক সমস্যার মুখে পড়তে হয় সেখানে কী করে কোউইন অ্যাপ বা পোর্টালের মাধ্যমে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করে টিকা নেবেন? আরও পড়ুন: লকডাউনের বাজারে মিষ্টি চোরের কুকীর্তি, কাঁচ ভেঙে ঢুকে ২৪টা রসগোল্লার টিন নিয়ে চম্পট

কো উইন অ্যাপে (Cowin App) বাধ্যতামূলক নাম নথিভুক্তকরণের বিষয়ে দেশের শীর্ষ আদালত সাফ জানায়, দেশের নীতি নির্ধারকদের মাটিতে কান রেখে চলতে হয়, কারণ আমাদের এখানে ডিজিটাল বিভাজন রয়েছে। যার উত্তরে সরকারী আইনজীবী জানান, গ্রামে কম্পিউটার শেখার কেন্দ্র বা সাইবার ক্যাফে নাথ নথিভুক্ত করার কাজ চলছে এবং চলবে। শীর্ষ আদালত এই বিষয়টা নিয়েও দ্বিধাপ্রকাশ করে।

দেশের সবাইকে চলতি বছরের মধ্যেই টিকাকরণ করার ব্যাপারে দেশে উপলব্ধ থাকা টিকার পাশাপাশি ফাইজারের সঙ্গেও কথা চলছে বলে সলিসিটার জেনারেল সুপ্রিম কোর্টকে জানান। দেশের ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়া নিয়েও কেন্দ্র যে উদাসিনভাব দেখাচ্ছে তা নিয়ও শীর্ষ আদালতে প্রশ্ন ওঠে। সুপেরিম কোর্ট জানায়, ৪৫ ও তার বছরের বেশি বয়সীদের টিকা দেওয়া নিশ্চিত করতে কেন্দ্র উদ্যোগ নিচ্ছে। তবে ১৮-৪৪ বছরের বয়সিদের মাত্র অর্ধেকের টিকা নিশ্চিত করতে পেরেছে কেন্দ্র। বাকিদের কেন বেসরকারী হাসপাতালের ভরসায় ছাড়া হচ্ছে সে প্রশ্নও করা হয়। বিভিন্ন রাজ্য যেভাবে টিকা কিনতে আন্তর্জাতিক দরপত্রের দিকে ঝুঁকছে তা নিয়ে কেন্দ্র কী ভাবছে তাও জানতে চাওয়া হয়।