Bifurcation of Jammu & Kashmir: উপত্যকায় কার্ফু উঠতে পারে ১৫-ই আগস্টের পর
জম্মু ও কাশ্মীরে কার্ফু (Photo Credits: IANS)

নয়া দিল্লি, ১৪ ই অগাস্ট: Bifurcation of Jammu & Kashmir: শান্তিতেই কেটেছে কাশ্মীরের ঈদ। তবে স্বাধীনতা দিবস ( Independence Day) নিয়ে কিছুটা চিন্তিত কেন্দ্র। স্বাধীনতা দিবস ভালোভাবে কেটে গেলে জম্মু ও কাশ্মীরে জেলাভিত্তিক কার্ফু ( Curfew) প্রত্যাহার করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। ধীরে ধীরে ফেরানো হবে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর, এই মাসেই কেন্দ্রীয় সরকার স্বাভাবিক অবস্থা ফেরাতে চান। আর মাস দুয়েক পর কাশ্মীরে প্রথম বাণিজ্যিক বিনিয়োগ সম্মেলন ( Global Investors Summit)  আয়োজন হওয়ার কথা। ১২- ১৪ অক্টোবর আয়োজিত হওয়ার কথা। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরকার চাইছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে।আরও পড়ুন,  সাহসিকতাকে কুর্নিশ, স্বাধীনতা দিবসে বীর চক্র পাচ্ছেন অভিনন্দন বর্তমান

আজ কেন্দ্র মেনে নেয়, গত শুক্রবার শ্রীনগরে শৌরায় নামাজের পর স্থানীয় মানুষের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। শুক্রবার আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে দেখানো হয় কাশ্মীরের স্থানীয় মানুষ পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট- পাথর ছুড়ছে। যদিও ঘটনাটি ভুয়ো বলে দাবি করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানায়, " সেদিন নামাজ পড়তে গিয়ে ভিড়ের মধ্যে লুকিয়ে ছিল দুষ্কৃতীরা। তারা বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে অশান্তি শুরু করে। কিন্ত বিক্ষোভ মোকাবিলা করতে বন্ধুক বা গুলি চালনা করা হয়নি।"

আজ কাশ্মীরের পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ রয়েছে। কার্ফু খানিক শিথিল করে প্রশাসন। উপত্যকার বিভিন্ন জায়গায় চলছে স্বাধীনতা দিবসের প্রস্তুতি। অমিত শাহ লালচকে পতাকা উত্তোলন করবে বলে খবর এসেছিল। কিন্তু এমন কিছু হবেনা বলে জানিয়েছে মন্ত্রক। আজ সেনাপ্রধান বিপিন রোবট দাবি করেন, " কাশ্মীরিদের সাথে সেনার সম্পর্ক অটুট রয়েছে।"