France: নবী মুহাম্মদের কার্টুন দেখানোয় ‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনি দিয়ে শিক্ষকের গলা কাটল যুবক
শিক্ষকের গলা কাটল যুবক (Photo: Twitter)

প্যারিস, ১৭ অক্টোবর: নবী মুহাম্মদের (Prophet Mohammed) কার্টুন পড়ুয়াদের দেখানোর জন্য 'আল্লাহু আকবর' ধ্বনি দিয়ে শিক্ষকের গলা কেটে নৃশংস ভাবে হত্যা করল এক যুবক। ফ্রান্সের প্যারিসের (Paris) ঘটনা। পুলিশের গুলিতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। একটি স্কুলের সামনে হামলার ঘটনা ঘটে স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে। এই ঘটনায় তদন্ত করছে সন্ত্রাস বিরোধী পুলিশ বিভাগ।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের শহরতলির এক স্কুল শিক্ষক স্যামুয়েল স্কুলের পড়ুয়াদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে পড়ানোর সময় ব্যঙ্গাত্মক সংবাদপত্র শার্লি হেবদো-র প্রকাশিত নবী মুহাম্মদের কার্টুন চিত্র দেখিয়েছিলেন। যার কারণে ওই যুবক ক্ষুব্ধ হয়। আজ একটি ছুরি নিয়ে আল্লহু আকবর ধ্বনি দিয়ে ওই শিক্ষকের গলা কেটে দেয়। ঘটনার খবর পেতেই পুলিশ ঘটনাস্থানে পৌঁছায়, কিন্তু হামলাকারী আত্মসমর্পণ করার বদলে পুলিশকেই হুমকি দেওয়া শুরু করে। এরপর পুলিশ গুলি করে তাকে নিকেশ করে।আরও পড়ুন: Coronavirus Testing: ৫ মিনিটেই জানা যাবে করোনা টেস্টের ফল, নতুন ডিভাইস আবিষ্কার অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীর

ফরাসি মিডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী, নিহত শিক্ষক ইতিহাস ও ভুগোল পড়াতেন। শার্লি হেবদো নবীর যেসব কার্টুন ছেপেছিল, সেগুলির একটি বা একাধিক কার্টুন দেখিয়ে ছাত্রদের সঙ্গে আলোচনা করার জন্য এ মাসের শুরুর দিকে কয়েকজন মুসলিম অভিভাবক স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগও করেছিলেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রঁ (President Emmanuel Macron) ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেছেন, "ওই শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছে কারণ তিনি 'মত প্রকাশের স্বাধীনতা'র শিক্ষা দিচ্ছিলেন। ইসলামিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ফ্রান্সের যুদ্ধ চলবে।”