Afghanistan: তালিবান দখলে যেতেই আফগানিস্তানে বাড়ছে হিজাবের চাহিদা, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দাম
Image used for representational purpose only (Photo Credits: PTI)

কাবুল, ২৩ অগাস্ট: তালিবানি (Taliban) ফতোয়া খুব কড়া। এদিক ওদিক হলেই জীবন পর্যন্ত যেতে পারে। তাই সেই ফতোয়ার কথা মাথায় রেখে আফগানিস্তানে বাড়ছে হিজাবের চাহিদা। কাবুলের (Kabul) রাস্তায় হিজাব বিক্রি করা এক বিক্রেতা বলছেন, ক দিন আগেও দিনে চার পাঁচটা হিজাব বিক্রি করাটাও সহজ ছিল না। কিন্তু এখন কাবুলে তালিবান আসতেই দোকানে ভিড় হচ্ছে। প্রতিদিন ১৬-১৭টা হিজাব এখন অনায়াসে বিক্রি হচ্ছে। চাহিদা একলাফে অনেকটা বাড়ায় ভাল মানে হিজাবের দাম বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার টাকা। আরও পড়ুন: আমেরিকার বিমানের মধ্যে সন্তান প্রসব করলেন আফগান মহিলা

তালিবান মুখপাত্ররা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে দাবি করছেন, কোথাও মানুষকে কোনও নিয়ম মানে বাধ্য করা হচ্ছে না। মেয়েদেরও হিজাব পরতে বাধ্। করা হচ্ছে না। কিন্তু বাস্তব অন্য কথাই বলছে। কাবুল তালিবান দখলে যাওয়ার পর ঠিক কী কী বদল ঘটেছে? বিজ্ঞাপনে মহিলাদের ছবি থাকলেই তা ঢেকে দেওয়া হয়েছে, শহরের রাস্তায় মহিলাদের কম দেখা যাচ্ছে। এমনটাই আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে দেখানো হচ্ছে।

এদিকে, সোমবার কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (Kabul airport) গুলি চলেছে। তাতে এক আফগান রক্ষীর (Afghan Guard) মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে জার্মান সামরিক বাহিনী (German Army)। তারা টুইটারে জানিয়েছে, বিমানবন্দরের উত্তর গেটে গুলির লড়াইয়ে ওই আফগান রক্ষী নিহত হন। জখম হয়েছেন আরও তিনজন।

তালিবানরা তাদের লোকজনকে বিমানবন্দরের বাইরে মোতায়েন করেছে। বাইরে থেকেই তারা ভিড় নিয়ন্ত্রণ করছে। অন্যদিকে, বিমানবন্দরের ভিতরে আফগান রক্ষীরা মার্কিন বাহিনীকে সাহায্য করছে। সিএনএন জানিয়েছে যে বিমানবন্দরের বাইরে থেকে একজন বন্দুকধারী আফগান রক্ষীদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং রক্ষীরাও পাল্টা গুলি চালায়। মার্কিন ও জার্মান বাহিনীও গুলি চালাতে শুরু করে। ঘটনায় এক আফগান রক্ষী প্রাণ হারান। জখম হন তিনজন।