New Jersey: ভয়াবহ পথদু্র্ঘটনায় আগুন পুড়ে গিয়েছিলেন, ২ বছর লড়াই শেষে ফের হাসছেন নিউজার্সির এই যুবক
জো ডিমেও (Photo Credits: Twitter)

নিউইয়র্ক, ৪ ফেব্রুয়ারি: গাড়ি দুর্ঘটনায় ভয়ঙ্করভাবে আগুনে পুড়ে যান নিউজার্সির বছর বাইশের জো ডিমেও (Joe DiMeo)। গত আগস্টে তাঁর শরীরে বড়মাপের একটা অস্ত্রোপচার হয়। এই অস্ত্রোপচারে হাত ও মুখের দুর্লভ প্রতিস্থাপন হয়েছে। এর ফলে ফের নতুন করে হাসতে, চোখের পলক ফেলতে, চিমটি কাটতে শিখছেন ডিমেও। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মুখটা প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। কপাল, কান, নাক, চোখের পাতা, ঠোঁট, থুতনি প্রতিস্থাপন করেছেন। রডরিগেজ বলেন, এটা যথেষ্ট কঠিন একটা অস্ত্রোপচার। মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। এদিকে দ্বিতীয় জীবন ফিরে পেয়ে উচ্ছ্বসিত ডিমেও বলেন, দ্বিতীয়বার জীবন পেয়েছি। ফের আশার আলো দেখতে পাচ্ছি। প্রত্যেকটা টানেলের শেষেই একটা আলো থাকে। তাই কখনই ভেঙে পড়া উচিত নয়। আরও পড়ুন-Ayodhya Mosque Controversy: এবার অযোধ্যার মসজিদ নির্মাণের ৫ একর জমির মালিকানা দাবি করলেন দিল্লির ২ বোন, মামলা কাঠগড়ায়

গত বছর ১২ আগস্ট প্রথম অস্ত্রোপচার হয়। দ্বিতীয় অস্ত্রোপচার হয় চলতি সপ্তাহে। ৯৬ জনের চিকিৎসকদের দল এই অস্ত্রোপচারে অংশ নেন। এই দলের নেতৃত্বে ছিলেন চিকিৎসক ডা. ইডাউরো রডরিগেজ। তিনি বলেন,  এটা আমাদের স্বীকার করতেই হবে যে জয় যথেষ্ট সহযোগিতা করেছেন। ভয়াবহ সেই রাত এখনও ভুলতে পারেন না জো ডিমেও। ২০১৮-র জুলাই মাসে রাতে অফিস থেকে বাড়ি ফিরছেন। গাড়ির স্টিয়ারিং হাতেই কখন ঘুমিয়ে পড়েন মনে নেই। ঘুম যখন ভাঙে তখন গাড়ি দুর্ঘটনার জেরে অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন তিনি। শরীরের আশি শতাংশ পুড়ে গিয়েছে। ঠোঁট ও চোখের পাতা নষ্ট হয়েছে। এমনকী, দৃষ্টিশক্তিও চলে গেছে। চারমাস হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ছিলেন। প্রায় আড়াই মাস কোমায় আচ্ছন্ন থাকার পর চিকিৎসকদের হাতযশে ও থ্রিডি প্রিন্টেড কাটিং গাইডসের মাধ্যমে নতুন জীবন ফইরে পেয়েছেন জো ডিমেও।