Pakistan Political Turmoil: কোনও প্রস্তাব দেওয়া হয়নি প্রধানমন্ত্রীকে, ইমরান খানের দাবি ওড়াল পাকিস্তান সেনা
Pakistan Prime Minister Imran Khan (Photo Credits: IANS)

ইসলামাবাদ, ২ এপ্রিল: আরও চাপে পাকিস্তানের (Pakistan) প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান Imran Khan)। পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী (Pakistan Military) প্রধানমন্ত্রীর থেকে দূরত্ব তৈরি করল। গতকাল ইমরান খান দাবি করেন যে সেনা তাঁকে তিনটি বিকল্প দিয়েছে, সেগুলি হল-পদত্যাগ করা, আগাম নির্বাচন ও অনাস্থা প্রস্তাবের মুখোমুখি হওয়া। যদিও পাকিস্তানি সেনাবাহিনী জানিয়েছে যে তারা কোনও বিকল্প পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী দেয়নি। সামরিক সংস্থা অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসেনি এবং ইমরান খানই রাজনৈতিক অস্থিরতা নিয়ে আলোচনা করতে বৈঠকের জন্য শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিদের ডেকেছিলেন।

এই তিনটি বিকল্পের প্রস্তাব না দিয়ে পারস্পরিকভাবে আলোচনা করা হয়েছিল। আলোচনা চলাকালীন ইমরান খান অ্যাসেম্বলি ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচন করতে সম্মত হন। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্ষমতাসীন সরকারের অনুরোধে বুধবার পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া এবং ইন্টার-সার্ভিস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই)-র প্রধান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করার পর তাঁরা বিরোধীদের সঙ্গে দেখা করে কী আলোচনা হয়েছে তা জানিয়ে দেন। আরও পড়ুন: Pakistan: ইমরান খানের তৈরি বিশৃঙ্খলা রুখে দিন, পাকিস্তানিদের একত্রিত হওয়ার ডাক প্রধানমন্ত্রীর প্রাক্তন স্ত্রীর

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, দেশের সাম্প্রতির রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সামরিক বাহিনী নিরপেক্ষ রয়েছে। তবে সমস্যা নিয়ে ইমরান খান ও বিরোধীদের মধ্যে যাতে আলোচনা হয়, তার জন্য সেনা উৎসাহিত করে।

গতকাল একটি বেসরকারি চ্যানেলে দেওয়া ইন্টারভিউতে ইমরান খান বলেছেন যে তিনটি বিকল্পের মধ্যে তিনি নির্বাচনকেই সেরা বলে মনে করেছেন। খান বলেন, "আমি পদত্যাগ করার কথা ভাবতেও পারি না এবং যতদূর অনাস্থা ভোটের কথা, আমি শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে বিশ্বাস করি। নির্বাচন হলে ভাল হবে। আমরা দলত্যাগীদের নিয়ে সরকার চালাতে পারি না।"