Kartarpur Corridor: লাগবে না পাসপোর্ট, বৈধ পরিচয়পত্র থাকলেই দরবার সাহিব গুরুদ্বার যেতে পারবেন ভারতীয় তীর্থযাত্রীরা, ঘোষণা ইমরান খানের
ইমরান খান(Photo Credit: Facebook)

ইসলামাবাদ, ১ নভেম্বর: করতারপুর করিডর (Kartarpur Corridor) দিয়ে দরবার সাহিব গুরুদ্বারগামী (Gurdwara Darbar Sahib) ভারতীয় তীর্থযাত্রীদের জন্য একাধিক ঘোষণা করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। তিনি জানান, করতারপুর করিডর হয়ে ভারত থেকে যে শিখরা আসছেন তাঁদের পাসপোর্ট থাকার প্রয়োজন নেই। শুধু বৈধ পরিচয়পত্র থাকলেই চলবে। এছাড়া তাঁদের ১০ দিন আগে নাম নথিভুক্ত করারও দরকার নেই। করিডরের উদ্বোধনের দিন ও গুরু নানকজি-র (Guru Nanak Dev) ৫৫০তম জন্মবার্ষকীতে তাঁদের কোনও ফি দিতে হবে না। শুক্রবার সকালে একটি টুইট করেন ইমরান। সেখানেই যাবতীয় ঘোষণা করেন তিনি।

টুইটে তিনি লেখেন, "ভারত থেকে যে শিখরা করতারপুরে আসছেন, তাঁদের দুটি জিনিসে ছাড় দিচ্ছি। ১) তাঁদের পাসপোর্ট থাকার প্রয়োজন নেই। শুধু বৈধ পরিচয়পত্র থাকলেই চলবে। ২) তাঁদের ১০ দিন আগে নাম নথিভুক্ত করার দরকার নেই।" পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী আরও জানান যে, ৯ নভেম্বর করতারপুর করিডরের উদ্বোধনের দিন এবং ১২ নভেম্বর গুরু নানক দেবের ৫৫০ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের দিন তীর্থযাত্রীদের গুরুদ্বার দরবার সাহেব দেখার জন্য কোনও ফি দিতে হবে না। যদিও অন্যদিন দরবার সাহিব গুরুদ্বার পরিদর্শনে ২০ মার্কিন ডলার পরিষেবা কর নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত জানায়নি ইসলামাবাদ। আরও পড়ুন: Kartarpur Corridor:করতারপুর সাহিব পরিদর্শনে ২০ মার্কিন ডলার পরিষেবা কর মকুব করুক পাকিস্তান, ফের আর্জি ভারতের

২০১৮ সালের ২৮ নভেম্বর পাকিস্তানের দিকে করতারপুর করিডরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন ইমরান খান। ভারতের দিকে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন উপ রাষ্ট্রপতি এম বেঙ্কাইয়া নাইডু এবং পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। করতারপুর করিডর শিখ সম্প্রদায়ের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৯ নভেম্বর করতারপুরপুর করিডরের উদ্বোধনের পরে গুরুদাসপুর জেলার ডেরা বাবা নানকের জনসভায় বক্তব্য রাখবেন। ভারত ও পাকিস্তান ঐতিহাসিক করতারপুর করিডর পরিচালনার জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। যাতে ভারতীয় শিখ তীর্থযাত্রীদের ভিসা ছাড়া সফর করতে দেওয়া হয় পাকিস্তানের পবিত্র দরবার সাহিব গুরুদ্বারে।