Taliban: ক্ষমতায় এসে প্রথম বার্তা, ভারত, আফগানিস্তানের মধ্যে বিমান পরিষেবা চালু করতে চায় তালিবান
Taliban Leaders (Photo Credit: Twitter)

কাবুল, ২৯ সেপ্টেম্বর: ভারত, আফগানিস্তানের (Afghanistan) মধ্যে বিমান (Flights) চলাচল ফের চালু করা হোক৷ আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখলের পর এই প্রথম ভারতের উদ্দেশে বার্তা তালিবান সরকারের৷ ইন্ডিয়া টুডে-র রিপোর্ট অনুযায়ী, আফাগনিস্তানের সঙ্গে ভারতের (India) আকাশ পথে যোগাযোগ অর্থাৎ বিমান চলাচাল যাতে আবার শুরু হয়, সে বিষয়ে নয়া দিল্লির প্রতি বার্তা দেওয়া হয়েছে তালিবান (Taliban)কেয়ারটেকার সরকারের তরফে৷ দিল্লিকে এ বিষয়ে ইসলামিক এমিরেটের তরফে চিঠিও পাঠানো হয়েছে বলে খবর৷ যদিও ভারতের তরফে এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও সদুত্তর দেওয়া হয়নি৷

সম্প্রতি রাষ্ট্রসংঘের (UNGA) সাধারণ অধিবেশনে তালিবানের প্রতি কড়া মনোভাব দেখান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)৷ আফগানিস্তান যাতে কোনওভাবে সন্ত্রাসের আতুড়ঘর হয়ে উঠতে না পারে, সে বিষয়ে বিশ্বের প্রত্যেকটি দেশকে সতর্ক থাকতে হবে বলে বার্তা দেন মোদী৷ পাশাপাশি আফগানিস্তানের বর্তমানে পরিস্থিতিকে ব্যবহার করে অন্য দেশ যাতে কাবুলকে (Kabul) সন্ত্রাসের কারখানা গড়তে না পারে, সে বিষয়ে নাম না করেই পাকিস্তানকে কটাক্ষ করেন মোদী৷

আরও পড়ুন: Rhea Chakraborty: প্রত্যেক সপ্তাহে ৩৫ লক্ষ? সলমনের বিগ বসের জন্য রিয়াকে বিপুল অঙ্কের পারিশ্রমিক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের (Joe Biden) পাশে বসে আফগানিস্তানকে কড়া বার্তা দেওয়ার পর রাশিয়া, তুরস্ক, জার্মানির মতো দেশগুলির ভারতের পাশে দাঁড়ায়৷ এমনকী, আফগানিস্তান সংসদভবনে যতক্ষণ না পর্যন্ত সমাজের সব শ্রেণির মানুষের প্রতিনিধি থাকবেন, ততক্ষণ ওই সরকারকে বৈধতা দেওয়া হবে না বলে জানানো হয়  মস্কোর তরফে৷

প্রসঙ্গত আফগানিস্তানে তালিবান ক্ষমতা দখলের পর সে দেশের বিভিন্ন জেল থেকে মুক্তি দেওয়া হয় জইশ-ই-মহম্মদ (JeM), লস্কর-ই-তইবার মতো পাক মতপুষ্ট জঙ্গিদের৷ ফলে আফগানিস্তানে তালিবান উজ্জীবিত হওয়ার পর তা যে ভরতের জন্য বেশ চিন্তার, তা প্রকাশ পেয়েছে একাধিকবার৷ এমনকী, আফগানিস্তানের জেল থেকে বেরিয়ে জইশ জঙ্গিরা কাশ্মীর হয়ে ভারতে প্রবেশ করে হামলার পরিকল্পনা করছে বলেও একাধিক রিপোর্ট উঠে আসে৷ এরপরই রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে হাজির হয়ে আফগানিস্তান নিয়ে কড়া বার্তা দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷