Mamata Banerjee Plays Khanjani: দার্জিলিংয়ে খঞ্জনি বাজিয়ে পথ হাঁটলেন মমতা ব্যানার্জি, 'ক্যা-ক্যা-ছি-ছি' বলল পাহাড়ও
গত বছর শহিদ দিবসের মঞ্চে মমতা ব্যানার্জি। (Photo Credits: Faceebook)

দার্জিলিং, ২২ জানুয়ারি: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতায় সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) ১৪৪টি আবেদনের শুনানি হয়েছে। সব মিলিয়ে ১৬০টি আবেদন জমা পড়েছে। বুধবার এই প্রসঙ্গে শীর্ষ আদালত জানিয়ে দিয়েছে, সিএএ-র বলবতে স্থগিতাদেশ দেওয়া হবে না। চার সপ্তাহের মধ্যে কেন্দ্র সুপ্রিম কোর্টে সিএএ নিয়ে তাদের জবাব পেশ করবে। সিএএ ও এনপিআরএ (NPR) স্থগিতাদেশ দেওয়া হবে কি না তা পাঁচ সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ খতিয়ে দেখবে। এদিকে, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন থেকে দেশজুড়ে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (NRC) বলবৎ করার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পথে নেমেছে পূর্ব, পশ্চিম, উত্তর ও দক্ষিণ ভারত (India)। পথে নেমেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (West Bengal CM Mamata Banerjee)। চলছে তাঁর রাজ্য সফর। আজ ছিল তাঁর পাহাড় সফর (Hill Station Tour)। দার্জিলিং-এর পথে মিছিলে নেমে বিপুল সাড়া পেলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাহাড় বলে উঠল 'ক্যা-ক্যা-ছি-ছি (CAA-CAA-CHHI-CHHI)।'

কলকাতার রাজপথ থেকে রাজ্যের জেলায় জেলায় কখনও শঙ্খ বাজিয়ে কখনও কাঁসর বাজিয়ে আবার কখনও গানের সঙ্গে গলা মিলিয়ে প্রতিবাদে নেমেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আর এদিন দার্জিলিংয়ে (Darjeeling) এনআরসির প্রতিবাদে খঞ্জনি বাজিয়ে প্রতিবাদে পথ হাঁটলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন দার্জিলিংয়ের ভানু ভবন থেকে মিছিল শুরু হয়। নেহরু রোড ধরে পদযাত্রা সোজা কাকঝোরায় যায়। সেখান থেকে পদযাত্রা ফিরে আসে দার্জিলিংয়ের মোটর স্ট্যান্ড চাকবাজারে। মিছিলের পর এদিন ফের একবার স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে তৃণমূল নেত্রীর স্পষ্ট ঘোষণা, বাংলায় এনআরসি-সিএএ হতে দেবেন না। এই সময়ের খবর অনুযায়ী, সরাসরি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপদেগে এদিন মমতা বলেন, দিল্লিতে (Delhi) বৈঠকে সব রাজ্যে উপস্থিত হয়েছিল। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ তার অবস্থানে অনড়। তাই রাজ্যের তরফে কেউ বৈঠকে যোগ দেয়নি। তৃণমূল নেত্রী ফের একবার হুঙ্কার দিয়ে বলেন, এনআরসি, সিএএ বাতিল না হওয়া পর্য্ন্ত এই আন্দোলন চলবে। পাশাপাশি এদিন সরাসরি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপদেগে তিনি বলেন, সবাইকে দেশ থেকে তাড়িয়ে দিলে দেশে থাকবে কে? রাজ্যে ডিটেনশন ক্যাম্প হবে না। সরাসরি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আক্রমণ করে তিনি আরও বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বড় বড় কথা বলছেন। তিনি সকালে এক কথা বলেন, বিকালে এক কথা। দেশের মানুষকে সঠিক কথা বলুন। আরও পড়ুন: CAA Row: সুপ্রিম রায়ে সিএএ-এনপিআর এ স্থগিতাদেশ নয়, চার সপ্তাহের মধ্যে আইনের পক্ষে জবাব দিক কেন্দ্র

তৃণমূল নেত্রী বলেন, আমায় গালি দিয়ে দেশ খালি করা যাবে না। ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনে লাঠি চার্জ (Lathicharge) করতে পারেন। আর দেশে দিনে দিনে বেকার সমস্যা বাড়ছে তার সমাধান কী তা বলুন? তৃণমূল কংগ্রেস, বিনয় তামাংদের (Binoy Tamang) গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, পাহাড়ের ১৬টি জনজাতি উন্নয়ন বোর্ডের সমর্থকেরা এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে মিছিলে পা মেলান।