'Jai Shree Ram' Slogans Raised At Victoria Memorial: ভিক্টোরিয়ায় 'জয় শ্রীরাম ধ্বনি', অপসংস্কৃতি, অসভ্য বেয়াদপের মতো কাজ', বললেন তৃণমূলের কুণাল ঘোষ
মমতা ব্যানার্জি এবং নরেন্দ্র মোদি (Photo Credit: PTI)

কলকাতা, ২৩ জানুয়ারি: ভিক্টোরিলা মেমোরিয়ালে নেতাজির জন্মদিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে তাল কেটেছে জয় শ্রীরাম ধ্বনিতে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (CM Mamata Banerjee) ভাষণ দিতে ডাকতেই 'জয় শ্রীরাম' স্লোগান ওঠে দর্শকদের মধ্য থেকে। প্রতিবাদে বক্তব্য রাখেননি মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, এটা সরকারি অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ করে কাউকে অপমান করা উচিত নয়। প্রতিবাদে আমি কিছু বলব না।" এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। টুইটে তিনি লেখেন, "নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সরকারি কর্মসূচিতে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় স্লোগান দেওয়ার তীব্র নিন্দা জানাই।"

এদিকে মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণ না দেওয়ার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। টুইটে তিনি লেখেন, জয় শ্রীরাম স্লোগান দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। মমতাজি একে অপমানজনক বলে মনে করেন। কী রাজনীতি!" পাল্টা তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, "কয়েকজন কাণ্ডজ্ঞানহীন বহিরাগতর এই অপসংস্কৃতির তীব্র নিন্দা করছি। বাংলার আত্মাকে তারা জানে না। এরা কারা। অসভ্য বেয়াদপের মতো কাজ। বহিরাগত শব্দটা ঘটনা ধরে ভাবলেই বোঝা যাবে কতটা যৌক্তিক। কৈলাস বিজয়বর্গীয় এই অপসংস্কৃতির ধারক ও বাহক।" আরও পড়ুন: Subhas Chandra Bose Jayanti 2021: ভিক্টোরিয়ায় বলতে উঠতেই 'জয় শ্রী রাম' ধ্বনি, প্রতিবাদে ভাষণ দিলেন না মুখ্যমন্ত্রী

আজ ২ টো ৪৫ নাগাদ কলকাতা বিমানবন্দরে নামে প্রধানমন্ত্রীর বিমান। সেখান থেকে হেলিকপ্টারে করে তিনি যান রেস কোর্সে। রেস কোর্স থেকে যান নেতাজির বাসভবনে। এরপর যান ন্যাশনাল লাইব্রেরিতে। জাতীয় গ্রন্থাগারে নেতাজিকে নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন। বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে যান। সেখানে উদ্বোধন করেন ‘নির্ভীক সুভাষ’ নামে স্থায়ী একটি গ্যালারির। পাশাপাশি, অন্যান্য বিপ্লবীদের নিয়ে ‘বিপ্লবী ভারত’ নামে আর একটি গ্যালারিরও উদ্বোধন করেন। সঙ্গে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যরা। এরপর সরকারি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন দুজনেই। সংগীত অনুষ্ঠান শেষ হতেই বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সংস্কৃতিমন্ত্রী প্রহ্লাদ প্যাটেল।

এরপরই মুখ্যমন্ত্রীকে ভাষণ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানান উপস্থাপক। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলতে উঠতেই 'জয় শ্রী রাম' ধ্বনি ওঠে। এরপরই বিরক্তি প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "সরকারি অনুষ্ঠানের ডিগনিটি থাকা উচিত। এটি কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি নয়। আমাকে আমন্ত্রণ করায় প্রধানমন্ত্রী ও সংস্কৃতিমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ। কাউকে আমন্ত্রিত করে অপমান করা উচিত নয়। প্রতিবাদ জানিয়ে আমি তাই বলছি না।