Kolkata Police: গানের পর শায়েরি, লকডাউনে কলকাতা পুলিশের সৃজনশীলতায় মজেছে শহরবাসী
শায়েরি শোনাচ্ছেন কলকাতা পুলিশের এক আধিকারিক (Photo: Youtube)

কলকাতা, ৪ এপ্রিল: ‘আমরা করব জয়’। এরপর প্যারোডিতে ‘বেলা বোস’। আর এবার আর গান নয়, একেবারে শায়রি। 'বে বাজা ঘর সে নিকালনা জরুরত কেয়া হে, মত সে আঁখ মিলানে কি জরুরত কেয়া হেট'-করোনা নিয়ে সচেতনতা বাড়েতে এমজি রোজে শায়েরি (Shayari) পড়ছেন এক আধিকারিক। অভিনব এই প্রচেষ্টা জোড়াসাঁকো থানার (Jorasanko Police Station) পুলিশের। লকডাউনে কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) একের পর এক প্রচেষ্টা ভাইরাল হচ্ছে। লক ডাউন চলছে। সাধারণ মানুষ ঘরবন্দী। কিন্তু সেই অনেকে লকডাউন না মেনে বাড়ির বাইরে বের হচ্ছেন। তাদের ঘরে বন্দি করতে মারধর থেকে শুরু করে হাজারও নানান উপায় খুঁজেছে কলকাতা পুলিশ। জরিমানা, ছয় মাসের জেল পর্যন্ত ঘোষণা করা হয়েছে প্রসাশনের তরফ থেকে। কিন্তু, এই সমস্তকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বুক চিতিয়ে বাড়ির বাইরে ঘুরছেন বহু মানুষ। এদেরকে ভালোভাবে বোঝাতে নানা উপায় বের করছে কলকাতা পুলিশ।

পুলিশের কাজ কি অপরাধ দমন? তা মোটেই নয়। আর তা যে নয়, সেই প্রমাণ তো দিয়ে দিচ্ছেন কলকাতা পুলিশের আধিকারিকরা। কখনও তাঁদের কণ্ঠে পিট সিগারের বিখ্যাত ‘আমরা করব জয়’ তো কখনও অঞ্জন দত্তর ‘বেলা বোস’-এর সুরে পরিস্থিতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ গান। বৃহস্পতিবার দেখা যায়, একডালিয়া এলাকায় গড়িয়াহাট থানার পুলিশের উদ্যোগে ফের গানের আসর। আশেপাশের বাসিন্দারাও যোগ দিলেন তাতে। বহুতলের ব্যালকনি থেকে মানুষের উঁকিঝুঁকি, পরে সমস্বের গেয়ে ওঠা করোনা বিরোধী লকডাউন সফল করার গান। আরও পড়ুন: Coronavirus In West Bengal: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১১ জন

সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই হুহু করে ভাইরাল হচ্ছে এই গান। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, হাতে মাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে সাদা উর্দির এক পুলিশ গান করছেন। বাকিরা ফোনের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালিয়ে হাত তুলে গানের সাথে সাথে দুলছেন। একই কাজ করছেন প্রতিবেশীরাও।