WB Assembly Elections 2021: বিজেপির তারকা প্রার্থী পায়েল তনুশ্রী শ্রাবন্তীকে ‘নগরীর নটী’ বললেন তথাগত রায়
বিতর্কিত অনুষ্ঠান নিয়ে মুখ খুললেন শ্রাবন্তী

কলকাতা, ৩১ মার্চ: রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন শুরু হয়েছে গত শনিবার। রাত পোহালেই দ্বিতীয় দফার ভোট। ক্ষমতা ধরে রাখতে প্রাণপণ চেষ্টা করে চলেছে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। বিরোধী বিজেপি আবার সোনার বাংলা গড়ার ডাক দিয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে তৎপর। এই পরিস্থিতিতে যদি জোড়াফুল পদ্মফুল হাত ধরাধরি করে চলে তাহলে তো প্রশ্ন উঠবেই। দলীয় কর্মী সমর্থকদের মধ্যেও ক্ষোভ দেখা দিতে পারে। দোলের দিনের এমনই এক ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই পদ্মশিবির ক্ষোভে ফুঁসছে। কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রর ডাকে গঙ্গাবক্ষে দোল খেললেন বিজেপির তিন তারকা প্রার্থী পায়েল, তনুশ্রী ও শ্রাবন্তী। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন তথাগত রায় (Tathagata Roy)।

এই প্রসঙ্গে মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপালের টুইট, “‘নগরীর নটী চলে অভিসারে যৌবনমদে মত্তা’! এই নটীদের এখনো এই বোধ হয়নি যে রাজনীতিটা অভিসার নয়। শেষপর্যন্ত বাসবদত্তার অবস্থা না হলেই ভালো।” বিজেপির কট্টর সমর্থক হলেন তথাগত রায়। সাংস্কৃতিক জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী এই প্রবীণ বিজেপি নেতা দলীয় নেত্রীদের এভাবে বিরোধী দলের নেতার সঙ্গে দোল খেলে নৃত্য করতে দেখে বিরক্ত হবেন এটাই স্বাভাবিক। কারণ সাধারণ জনগণের কাছে যে ভুল বার্তা যাচ্ছে তা স্পষ্ট। এনিয়ে শ্রাবন্তী বলেছেন, রাজনীতি রাজনীতির জায়গায় আর দোল বাঙালির চিরন্তন উৎসব। সেখানে এসবের ব্যাপার নেই। অন্যদিকে পায়েল ও তনুশ্রী বলেন, মদনদাকে অনেকদিন ধরে চেনেন তাই দাদা ডাকতেই দোল খেলতে চলে এসেছেন। আর যাঁকে কেন্দ্র করে এই বক্তব্য সেই পোড় খাওয়া রাজনীতিক তথা কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র বলেছেন, “দোল মানে সব রং মিলে যাওয়ার উৎসব। এটাই তো বাংলার সংস্কৃতি।”

পায়েল সরকার গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েই বেহালা পূর্বের প্রার্থী হয়েছেন। একইভাবে বেহালা পশ্চিমে তৃণমূলের হেভিওয়েট প্রার্থী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়ছেন শ্রাবন্তী। হাওড়ার শ্যামপুরের বিজেপি প্রার্থী তনুশ্রী। রবিবার দোলের দিনে গঙ্গা বক্ষে তসরের পাঞ্জাবি পরে দোল খেলতে মেতে ওঠেন মদন মিত্র। সেই লঞ্চেই ছিলেন বিজেপির এই তিন নেত্রী। তাঁরাও আবীরে রেঙে নাচ করছিলেন। এমন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই বিজেপির কর্মী সমর্থকদের মুখভার।