Nusrat Jahan: 'সিঁদুর পরে, স্বামীর পরিচয় করিয়ে বিয়ে অস্বীকার, ভারতীয় সংস্কৃতির অপমান করছেন নুসরত'
নুসরত, দিলীপ ঘোষ, ছবি ইনস্টাগ্রাম, এএনআই

কলকাতা, ২৩ জুন: বিয়ে, বিচ্ছেদ নিয়ে এবার নুসরত জাহানকে (Nusrat Jahan) কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh )। বিজেপির রাজ্য সভাপতি  বলেন,  নুসরত   সিঁদুর পরেছেন। নিজের বউভাতে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ করেছেন। স্বামী হিসেবে একজনকে গ্রহণ করেছেন। আর এখন বলছেন, তিনি বিয়েই করেননি।এসব বলে ভারতীয় সংস্কৃতিকে অপমান করেছেন নুসরত জাহান। নুসরত একজন মহিলা সাংসদ। সিঁদুর পরে এখন বিয়েকে অস্বীকার করছেন তিনি। এভাবেই বসিরহাটের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ (TMC) ভারতীয় সংস্কৃতির অপমান করছেন বলে কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ।

যদিও নুসরত জাহান এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত পালটা কোনও মন্তব্য করেননি। সম্প্রতি নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ে এবং বিচ্ছেদ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন সাংসদ অভিনেত্রী। তিনি বলেন, নিখিলের সঙ্গে তিনি লিভ ইন করতেন।বিয়ে হয়নি। নিখিলের সঙ্গে বিয়ে হয়নি, তাই বিচ্ছেদের প্রশ্ন  নেই বলে মন্তব্য করেন নুসরত। তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদের ওই দাবির পর জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: ভাল রাখার ক্ষমতা নিজের হাতেই, কীসের ইঙ্গিত নুসরতের

নুসরতের দাবির পর পালটা দাবি করেন নিখিল জৈন (Nikhil Jain)। তিনি বলেন, ২০১৯ সালে তুরস্কে গিয়ে তাঁদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর নুসরতের প্রতি তিনি স্বামীর সমস্ত দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে বিয়ের পর রেজিস্ট্রি করতে বললে, নুসরত তা বার বার এড়িয়ে যান। ২০২০ সালের অগাস্ট মাস থেকে তাঁর প্রতি নুসরতের ব্যবহার বদলে যেতে শুরু করে একটি সিনেমার শ্যুটিংয়ের সময় থেকে। এরপর অক্টোবরে নুসরত তাঁর বাড়ি ছেড়ে নিজের ফ্ল্যাটে গিয়ে থাকতে শুরু করেন। ওই সময় নিজের সমস্ত জরুরি জিনিস নুসরত সঙ্গে করে নিয়ে যান। ওই ঘটনার পর থেকে তাঁর সঙ্গে নুসরতের আর কোনও যোগাযোগ নেই বলে দাবি করেন নিখিল জৈন।

নুসরত-নিখিলের দাবি পালটা দাবিতে এবার উত্তাল হয়ে উঠতে শুরু করে সংবাদ মাধ্যম। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই লোকসভার অধ্যক্ষের কাছে অভিযোগ করেন বিজেপি সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য। লোকসভায় দাঁড়িয়ে নুসরত নিজেকে বিবাহিত বলে জানিয়েছিলেন। এবার নিজের বিয়ের কথা অস্বীকার করে লোকসভায় দাঁড়িয়ে মিথ্যে বলার স্পর্ধা নুসরত দেখিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন সংঘমিত্রা মৌর্য।