Mukul Roy: গেরুয়া শিবির ছেড়েই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়লেন মুকুল রায়
মুকুল রায়

কলকাতা, ১২ জুন: তৃণমূল থেকে বিজেপি, বিজেপি থেকে আবার তৃণমূল। শুক্রবারই নিজের পুরনো দল তৃণমূলে ফিরলেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। দলে ফেরার পর গেরুয়া শিবির থেকে পাওয়া সমস্ত কিছুই ত্যাগ করেন তিনি। বদলে ফেলেন তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলের ছবি। শনিবার জানা যায়, কেন্দ্রীয় নিরাপত্তাও ছেড়েছেন মুকুল। তার জায়গায় রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তা পাবেন তিনি। রাজ্যের তরফে মুকুল রায়কে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়া হয়। একই নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে পুত্র শুভ্রাংশুকেও।

শুক্রবার দলে আনুষ্ঠানিক যোগদান শেষে পার্থ চট্টোপাধ্যায়,সুব্রত বক্সি, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সান্ধ্য আড্ডা বসে। তৃণমূল ভবনে ৩ বছর পর পুনর্মিলনে বেজায় খুশি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়। জানা যায়, নিজের হাতে আলুভাজা ও চিপস দিয়ে মুড়ি মাখেন নেত্রী। তৃণমূলের ভাঙা ঘর জোড়া লাগার আনন্দে আড্ডার সহযোগে মুড়ি মাখা দিয়ে দিনটি উদযাপিত হয়। আরও পড়ুন, পদ্ম ছেড়ে 'ঘর ওয়াপসি', তৃণমূলের মুকুল জয়

গতকাল তৃণমূল ভবনে মুকুল রায়কে পাশে বসিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন মমতা বন্দোপাধ্যায়, উত্তরীয় দিয়ে সম্মান জানান অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায় সহ সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মতো প্রবীণ নেতারা। তৃণমূলের সঙ্গে যাঁরা 'গদ্দারি' করেছেন তাঁদের ফেরানো হবে না বলে জানিয়ে দেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। তবে আগামী ২০২৪-র লোকসভা নির্বাচনের আগে মুকুলের ঘরে ফেরা তৃণমূলের কাছে এক বিরাট জয় বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

বেশ কিছুদিন ধরেই তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন মুকুল। বিজেপির সঙ্গে মুকুলের দূরত্ব যে ক্রমে বাড়ছিল তাও স্পষ্ট। দিন দুয়েক আগে বিজেপির একটি বৈঠকে মুকুলকে ডাকা হয়নি বলে তিনি দাবি করেন। মুকুল রায়ের অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে যান অভিষেক বন্দোপাধ্যায়।