Mamata Banerjee: একুশের একুশে জুলাই মমতা ব্যানার্জির ভাষণ এবার দিল্লিতে এলইডি স্ক্রিনে, দেশের বিরোধী মুখ দিদিকে দেখবে রাজধানী শহর
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় (Picture Credits: ANI)

কলকাতা, ২১ জুলাই: গতবার ২১ জুলাই তৃণমূলের শহিদ দিবস (21 July Martyr's Day Rally)-টা হয়েছিল রাজ্যে দলের সিংহাসন ধরে রাখার লক্ষ্যে। সেই মিশনে মমতা ব্যানার্জি ( Mamata Banerjee) পুরোপুরি সফল। নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহদদের হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও দিদি পরপর তিনবার দুশোর বেশি আসনে জিতে বাংলায় ক্ষমতায় ফিরেছেন। বাংলায় বিজেপির স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে। বাংলায় ভোটে চিরস্মরণীয় জয়ের পর এই প্রথম দলীয় সমাবেশ দিদির। বাংলা জয়ের পর এবার ২১ জুলাই দিদির চোখ দেশের রাজনীতিতেও। করোনার কারণে গতবারের মতও এবারও ভার্চুয়াল শহীদ দিবসের মঞ্চে বক্তব্য রাখবেন মমতা ব্যানার্জি। আরও পড়ুন: অতিমারীর কাঁটায় ২১ জুলাইয়ের শহিদ স্মরণ, কী বললেন মমতা? (দেখুন ভিডিও)

তবে এবার আর শুধু রাজ্যে নয়, দিল্লিতেও দিদির ভাষণ এলইডি স্ক্রিনে সরাসরি দেখানোর ব্যবস্থা করছে দল। এই প্রথম এমন উদ্যোগ। রাজধানীতে তৃণমূলের দলীয় দফতরে সংসদীয় দলের উদ্যোগে মমতার বক্তৃতা সম্প্রচারের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। তৃণমূলের রাজ্যসভার উপদলনেতা সুখেন্দুশেখর রায় জানান, "তৃণমূলের দিল্লির অফিসে এলইডি স্ক্রিন লাগিয়ে সেখানেই নেত্রীর বক্তৃতা দেখানো এবং শোনানো হবে।"

বাংলায় দিদিকে হারাতে মরিয়া মোদী-শাহকে এবার দেশের রাজনীতিতে কোণঠাসা করতে মরিয়া মমতা। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে বিরোধীদের মুখ হতে চলেছেন দিদি। কারণ মমতাই দেশের একমাত্র দল যারা বড় রাজ্য থেকে একা লড়েই মোদী-শাহকে পর্যদুস্ত করেছেন। রাজ্য ছাড়িয়ে দেশের রাজনীতির চালিকাশক্তি হতে তাই এবারের ২১ জুলাইটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ তৃণমূলের কাছে। এই কারণেই এবার ২১ জুলাই, শহীদ দিনসে মমতার ভার্চুয়াল বক্তব্য দিল্লিতে সরাসরি দেখানোর যাবতীয় ব্যবস্থা করছে তৃণমূল।

দেশের রাজনীতিতে চালিকাশক্তি হতে হলে রাজধানী দিল্লিতে নিজেদের শক্তি দেখাতেই হবে। সেই কাজটা শুরু করছে তৃণমূল। ২০১৯ লোকসভায় বিরোধীদের নিয়ে একজোট করার কাজটা করেছিলেন মমতা। এবার সেই কাজটা দিদি অনেকটা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে করতে পারবেন। কারণ বাংলায় তৃণমূল আগের থেকে অনেকটা শক্তিশালী, সুসংহত। অন্যদিকে, আরও ছন্নছাড়া আরও দুর্বল হয়ে পড়ায় মোদী বিরোধীরা এখন দিদির দিকেই তাকিয়ে। আগামী বছর উত্তর প্রদেশে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিধানসভা নির্বাচন। যোগী আদিত্যনাথ বাংলায় ভোট প্রচারে এসে দিদিকে আক্রমণ করেও কোনও ফল পাননি। এবার যোগী রাজ্যে দিদি কী স্ট্র্যাটেজি নেন সেটাই দেখার। সব মিলিয়ে গতবার ভার্চুয়াল ২১ জুলাই তৃণমূল সমর্থকদের স্লোগান ছিল, মমতাকে ফের মুখ্যমন্ত্রী করা। আর এবার দিদিকেই প্রধানমন্ত্রী চাই স্লোগানেই শুরু হবে ২১-এর ২১ জুলাই।

১৯৯৩ সালে ২১ জুলাই  মহাকরণ অভিযানে পুলিশের গুলিতে নিহত ১৩ জন বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্রতি বছর এই দিনটি শহিদ দিবস হিসেবে পালন করে আসছে তৃণমূল কংগ্রেস৷