WB Assembly Elections 2021: ভারতের সবচেয়ে ভ্রষ্টাচারী দল বিজেপি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মমতা ব্যানার্জি

ঝাড়গ্রাম, ১৭ মার্চ: ‘আমায় আগে মারত সিপিএম, এখন মারে বিজেপি’। হুইল চেয়ারে চড়ে আজ ঝাড়গ্রামের গোপীবল্লভ পুরের জনসভা এভাবেই মুখ খুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। গত বুধবার নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারে পড়ে গিয়ে পায়ে চোট পান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত রবিবার প্রথম হুইল চেয়ারে বসেই পথসভায় য়োগ দেন তিনি। এরপর পুরুলিয়ায় দুটি সমাবেশ। বাঁকুড়ায় তিনটি সমাবেশের পর আজ ঝাড়গ্রামের গোপীবল্লভ পুরের সমাবেশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই তিনি বলেন, “বিজেপির পরিকল্পনা আছে রেলকে দিয়ে স্টেশনে স্টেশনে বাইরে থেকে গুন্ডা নিয়ে এসে তাঁদের চারিদিকে ঢুকিয়ে দেবে। তারপর আপনার ভোটটা নষ্ট করে দেবে। গন্ডগোল করে আপনার ভোট দখল করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে।” আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: চলতি বছরে সর্বোচ্চ দৈনিক সংক্রমণ, করোনা আবহে নাকাল গোটা দেশ

তিনি বলেন, “বিজেপি ঝাড়গ্রামের মানুষদের সমস্যা জানে না। ভারতের সবচেয়ে ভ্রষ্টাচারী দল বিজেপি। মোদি ভোট নেওয়ার জন্য বিহারে গিয়ে বলেছিলেন সবাইকে কোভিড টিকা দেব। কিন্তু আজ পর্যন্ত দেওয়া হয়নি। মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সব।আমি চাই কোভিডের টিকা সবাইকে দেব। আমি বলছি বিনা পয়সায় দেব। কিন্তু নরেন্দ্র মোদি দিচ্ছেন না। বিনা পয়সায় রেশন দিই। আগামি দিন আপনাদের রেশনে যাওয়ার দরকার নেই। দুয়ারে সরকার দরজায় দরজায় খাবার পৌঁছে দিয়ে আসবে। ভারতবর্ষে দুঃশাসন রাজ চালাচ্ছে বিজেপি। যদি আপনারা চান আমি থাকব না। নিশ্চয়ই আপনারা আপনাদের মতো ভোট দিতে পারেন। এটা আমার মা-ভাই-বোনদের উপর ছেড়ে দেব। বিজেপি কিছু জানে না। কী জানবে কোনওদিন বাংলায় ছিল? লোকসভা নির্বাচনে জিতে কিছু করেছে আপনাদের জন্য? ২ বছর আগে যে জিতল, জেতার পর কিছু করেছে।”

তৃণমূল নেত্রী বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগে বললেন, “আমার একটা পা নয়। লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি মানুষের পা নিয়ে আমি জিতব। আজকে পা- টা বাকি ছিল। আজ সেটাকেও তোমরা আঘাত করলে। আগে যখন ঝাড়খণ্ডে বিজেপি ছিল। আদিবাসীদের জমি কেড়ে নিত। বিজেপির আমলে বেকারের সংখ্যা বেড়ে গেল। ১ হাজার নেতা নিয়ে এসেছে বাইরে থেকে। আর হাজার হাজার বহিরাগত গুন্ডা। ওরা চায় ঝাড়গ্রাম দখল করতে। ওরা চায় পুরুলিয়া দখল করতে। ওরা চায় গোয়ালতোড় দখল করতে। নরেন্দ্র মোদি নির্বাচনের সময় মাইক লাগিয়ে বড় বড় কথা বলে। দুটো বাংলায় বলে, কেমন আছেন? তারপরেই মিথ্যে বলতে শুরু করেন।”