Cyclone Yaas: ঘূর্ণিঝড় য়াসের প্রভাবে ফুঁসছে সমুদ্র, তৈরি বাংলার কৃষি দফতর, জানালেন মন্ত্রী
ফুঁসছে সমুদ্র

কলকাতা, ২৫ মে:  ঘূর্ণিঝড় (Cyclone) য়াস (Yaas) স্থলভাগে আছড়ে পড়বে ২৬ মে। স্থলভাগে য়াস আছড়ে পড়ার আগে রাজ্যজুড়ে সমস্ত ধরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ২৫ মে রাতে নবান্নে রাত্রিযাপন করবেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।  নবান্ন থেকেই গোটা রাজ্যের পরিস্থিতির উপর বিশেষ করে পূর্ব মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনার উপর চালানো হবে নজরদারি।

ঘূর্ণিঝড় এই প্রথম নয়। তাই রাজ্য জুড়ে সমস্ত ধরনের পদক্ষেপ করা হয়েছে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী (Irrigation) সৌমেন মহাপাত্র। তিনি বলেন,  উপকূলবর্তী এলাকায় যে সমস্ত বাড়িতে জল ঢুকে নষ্ট হয়ে যাবে বাসস্থান, তা নতুন করে তৈরি করা হবে। য়াস মোকাবিলা করতে সমস্ত ধরনের পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের তরফে করা হয়েছে বলে জানান কৃষি এবং সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র।

আরও পড়ুন: Cyclone Yaas: ঘূর্ণিঝড় য়াসের গর্জন, বাতিল দূরপাল্লার ৩৮টি ট্রেন

এদিকে জানা যাচ্ছে, ওড়িশার চাঁদবালি এবং ধামড়ার মাঝে ২৬ মে স্থলভাগে আছড়ে পড়তে পারে য়াস। য়াস প্রথমে বালাসোরে আছড়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হলেও, পরে জানা যায়, এই ঘূর্ণিঝড়ের চোখ আছড়ে পড়বে ধামড়া বন্দরে। সেই কারণে দেশের অন্যতম পুরনো বন্দর ধামড়া জুড়ে নেওয়া হচ্ছে সমস্ত ধরনের উপযুক্ত ব্যবস্থা।

চাঁদবালি থেকে ধামড়ার (Dhamra Port) মাঝে য়াস আছড়ে পড়লেও তার প্রভাব পড়বে বাংলায়। পূর্ব মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণার উপকূলবর্তী এলাকা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।