MLA Hostel: বিধায়ক হোস্টেল থেকে তৃণমূল বিধায়কের নিরাপত্তারক্ষীর দেহ উদ্ধার, রহস্যমৃত্যু ঘিরে উত্তাল ক্যাম্পাস
Kolkata MLA Hostel (Photo Credits: IANS)

কলকাতায় বিধায়ক হোস্টেল (MLA Hostel) থেকে নিরাপত্তারক্ষীয় দেহ উদ্ধার। শনিবার সাত সকালে হোস্টেল ক্যাম্পাসে বিধায়কের দেহরক্ষীর রহস্যমৃত্যু ঘিরে তুমুল চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তি পুরুলিয়ার বান্দোয়ানের তৃণমূল বিধায়ক রাজীব লোচেন সোরেনের নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন। মৃতের নাম জয়দেব ঘড়াই। তিনি রাজ্য পুলিশের কনস্টেবল পদে নিযুক্ত ছিলেন। আত্মহত্যা নাকি নিরাপত্তারক্ষী মৃত্যুর পিছনে অন্যকোন কারণ রয়েছে তা নিয়ে তৈরি হয়েছে রহস্য।

খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পার্কস্ট্রিট থানার পুলিশ এবং ডেপুটি কমিশনার পুলিশ। এসেছে চার সদস্যের ফরেনসিক টিম। দুর্ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ শুরু করেছে তাঁরা। মৃতদেহটি উদ্ধার করে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্যে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত মৃত্যুর কারণ সম্বন্ধে কিছুই বলতে পারছে না পুলিশ।

হোস্টেল আবাসিক সূত্রে খবর, এদিন ভোর ৫ টা নাগাদ বিধায়ক হস্টেলের ২ নম্বর গেটের ক্যাম্পাসে ঝুপ করে কিছু একটা পড়ে যাওয়ার শব্দ শোনা যায়। খোঁজ করে জানা যায় ৪১৯ নম্বর ব্যালকনির নীচে পড়ে রয়েছে তৃণমূল বিধায়কের নিরাপত্তারক্ষীর দেহ। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। জয়দেব ঘড়াই নিজে পড়ে গিয়েছেন নাকি তাঁকে কেউ ফেলে দিয়েছে সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। পাশাপাশি, বিধায়ক হোস্টেল এমন এক জায়গা যা কড়া নিরাপত্তায় মোড়া থাকে সর্বক্ষন। সেখানে নিরাপত্তার ফাঁক গলে এমন ঘটনা কীভাবে ঘটল তা ঘিরেও উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

ঘটনা প্রসঙ্গে ভাতরপুরের তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবির জানান, 'পরশুদিনই ওই বিধায়ক হোস্টেলে এসেছিলেন। সঙ্গে আসেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষী জয়দেবও। আর আজ এই ঘটনা'।