বারাকপুর বনধ: বিজেপি-র 'দাদাগিরি'-তে আক্রান্ত পুলিশ- বন্দুকের বাঁটে মাথ ফাটল বিজেপি কর্মীদের, RAF নামিয়ে শান্তি ফেরানোর চেষ্টা
রণক্ষেত্র ব্যারাকপুর (Photo Credits: ANI and 24 Ghanta Screenshot)

উত্তর ২৪ পরগনা, ২ সেপ্টেম্বর: Barrackpore Strike: আজও রণক্ষেত্র বারাকপুর (Barrackpore)। সকাল থেকে চলছে সাংসদ অর্জুন সিংয়ের ওপর হামলার প্রতিবাদ। চলে ট্রেন অবরোধ ও রাস্তা অবরোধ। বন্ধ কলকারখানাগুলিও। ১২ ঘন্টার বন্ধ ডাকা হয়েছে। এই ঘটনা ঘিরে বারাসাত রোডের ওপর বারাকপুর ব্রিজের সামনে তৃণমূল- বিজেপি সংঘর্ষ বেঁধে যায়। টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, তৃণমূলের তরফ থেকে দাবি তারা গায়ের জোরে এলাকা বন্ধ করতে চান। এসব বাধা দিতে যান তারা। সেইসময় শুরু হয় সংঘর্ষ। তৃণমূলের সঙ্গে সংঘর্ষে বাঁশ, বন্দুকের আঘাতে মাথা ফেটে যায় ৫ বিজেপি কর্মীর।

তারা স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি। এইমুহূর্তে বারাকপুর বিভিন্ন এলাকা রণক্ষেত্র চলছে। জখম হন টিটাগড় থানার আইসি। বিজেপি- তৃণমূল সংঘর্ষে জখম প্রায় ২০। এদেরমধ্যে বেশকয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আজ সকাল থেকেই অর্জুন সিংয়ের ওপর হামলার বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে অবরোধ শুরু করে বিজেপি সমর্থকেরা। রাস্তার মাঝে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। অটো, টোটো, রিক্সা থেকে যাত্রীদের নামিয়ে দেওয়া হয়। দোকানপাট যা খোলা ছিল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর জেরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে, নৈহাটি-চুঁচুড়া ফেরি সার্ভিস বন্ধ, ট্রেন চলাচলও বিঘ্ন ঘটেছে। আরও পড়ুন, অর্জুন সিংয়ের ওপর হামলার জেরে সাতসকালে ট্রেন অবরোধ টিটাগড়ে, ব্যারাকপুরে বিজেপির বন্ধ ঘোষণা

প্রসঙ্গত, গতকাল সাংসদ অর্জুন সিংয়ের (Arjun Singh) ওপর হামলার পর আজ ১২ ঘন্টার বন্ধ ডাকে বিজেপি। বারাকপুর (Barrrackpore) শিল্পাঞ্চলে বন্ধ ডাকা হয়েছে। তার জেরে সকাল থেকে বিক্ষোভ, অবরোধ লেগে রয়েছে। এর প্রভাবে শিয়ালদহ উত্তর শাখার ট্রেন চলাচল কার্যত ব্যাহত।