উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি: নানুরে বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ নিয়ে রাজনৈতিক টানাপোড়েন, অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা পলাতক
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: File Image)

কলকাতা, ১০ সেপ্টেম্বর: উত্তপ্ত রাজ্যের দু' দলের রাজনৈতিক পরিস্থিতি। বীরভূমের (Birbhum) নানুরে (Nanur) মৃতদেহ নিয়ে রাজনৈতিক টানাপোড়েন। ২৪ ঘন্টা সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ওই ব্যক্তি বিজেপি কর্মী ছিলেন। মৃতের নাম স্বরূপ মন্ডল। ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূলনেতা কেরিম খান পলাতক। এদিকে হাসপাতালে গিয়ে দেহ পেলেন না পরিবারের লোকজন ও বিজেপি দলের লোকেরা। দেহ না পেলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে দলের পক্ষ থেকে।

এনআরএস হাসপাতাল (NRS Hospital) থেকে সোমবার গভীর রাতে মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হয় বোলপুর মহকুমা হাসপাতালের মর্গে। মৃতদেহ এখনও পর্যন্ত পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। তাঁদের দাবি দেহ না পেলে আইনি পথে হাঁটবেন তাঁরা। মৃত স্বরূপ গড়াইয়ের দাদা অনুপ গড়াই জানান, ‘হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলেছিলাম মঙ্গলবার হাসপাতালে বডি নিতে যাব। কিন্তু পরে সংবাদমাধ্যম থেকে জানতে পারি পুলিস রাতেই বডি নিয়ে চলে গিয়েছে। প্রশাসনের তরফে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালে বডি নিতে যাব। না পেল আইনের আশ্রয় নেব।’ আরও পড়ুন, বাড়ি ফেরার পথে অ্যাসিড হামলার শিকার নবম শ্রেণীর ২ ছাত্রীর, ঝলসে গেল গা- মুখ

তাঁর আরও দাবি পুলিশ কেন রাতের অন্ধকারে ২২ গাড়ির কনভয় নিয়ে দেহ নানুর নিয়ে চলে গেল, সরকারি হাসপাতালে কারও মৃত্যু হলে মৃতদেহ নিকট আত্মীয় বা পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। স্বরূপ দত্তের ক্ষেত্রে কেন তা মানা হল না সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। দলীয় সূত্রে খবর আজ সকাল ন' টা নাগাদ এনআরএস হাসপাতালে আজ স্বরূপ গড়াইয়ের পরিবারের লোকজনকে নিয়ে যাবে বিজেপি নেতারা।

অন্যদিকে, আজ সকাল থেকে ২ জেলায় ৩ টি খুনের খবর পাওয়া গিয়েছে। ৩ জন তৃণমূল কর্মী খুন হন। মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনায় গুলি চলে।