Arjun Singh: দিদির ওপর রাগ করে তৃণমূল ছাড়া অর্জুন সিং দলে ফিরলেন অভিষেকের হাত ধরে, আট মাসে বাংলার দুই বিজেপি সাংসদ জোড়াফুলে
Arjun Singh, Mamata Banerjee । (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ২২ মে: বিজেপি ছাড়ব ছাড়ব করছিলেন। তৃণমূলে ফিরব ফিরবও করছিলেন। কিন্তু সেটা যে এত তাড়াতাড়ি হবে, আর আজই হবে সেটা কিছুটা অপ্রত্যাশিতই মনে করা হচ্ছিল ক দিন আগে। তবে রাজনীতিতে অপ্রত্যাশিত বলে কিছু হয় না, চিরস্থায়ী বন্ধু-শত্রু বলেও কিছু হয় না। সেটা মনে করিয়ে আবার ফুল বদলে তিন বছর পর তৃণমূলে ফিরলেন বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh)। ২০১৯ লোকসভা ভোটের আগে প্রার্থী তালিকায় নাম না থাকায় দিদির ওপর রাগ দেখিয়ে সোজা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন ভাটপাড়ার চারবারের বিধায়ক অর্জুন। আর এবার তৃণমূলে ফিরলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে। রবিবার দুপুরে ভাটপাড়া থেকে কলকাতায় আসেন অর্জুন।

প্রথমে আলিপুরের ফ্ল্যাটে তৃণমূলের এক নেতার সঙ্গে বৈঠক সারেন বারাকপুরের সাংসদ। তখন ক্যামাক স্ট্রিটে অভিষেক বৈঠক সারেন দলের উত্তর ২৪ পরগনার নেতৃত্বের সঙ্গে। এরপরই অভিষেরের অফিসে যান অর্জুন।

দেখুন টুইট

গত আট মাসে রাজ্যে বিজেপি-র দু জন সাংসদ তৃণমূলে এলেন। প্রথমে আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় দল ও সাংসদ পদ ত্যাগ করে তৃণমূলে আসেন। তারপর বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং পদ্মশিবির ছেড়ে তৃণমূলে ফিরলেন। ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুনের ছেলে পবন সিংও বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন বলে খবর। সেক্ষেত্রে রাজ্য বিধানসভায় আরও শক্তি কমছে বিজেপি-র।  আরও পড়ুন: পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না থেকে উদ্ধার হওয়া ৮০০টি বোমা নিষ্ক্রিয় করল বম্ব স্কোয়াড

অভিষেকে অফিসে ঢোকার সময় অর্জুন

২০২২ বিধানসভা ভোটে দক্ষিণবঙ্গে চলা তৃণমূলের সুনামি সামলেও ভাটপাড়ায় নিজের গড় রক্ষা করে বিজেপির টিকিটে নিজের ছেলেকে জিতিয়ে এনেছিলেন। যদিও পুরভোটে অর্জুন গড় পুরোপুরি ভেঙে পড়ে। এরপর থেকেই বিজেপি-র সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে শুরু করে অর্জুনের। পাটশিল্পের সঙ্গে জড়িতদের সমস্যা নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযুষ গোয়েলের বিরুদ্ধে তোপও দেগেছিলেন অর্জুন। তখন থেকেই মনে হচ্ছিল অর্জুন পদ্মশিবির ছাড়তে চলেছেন।

এখন প্রশ্ন, তৃণমূলে ফিরে কতটা জায়গা পান অর্জুন। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সহ উত্তর ২৪ পরগনা জেতা তৃণমূল নেতৃত্ব অর্জুনকে কতটা জায়গা দেন সেটাই দেখার। ২০২৪ লোকসভা ভোটে বারাকপুরে অর্জুনকে মমতা প্রার্থী করেন কি না সেটাও দেখার। অনেকেই বলছেন, রাজ্য রাজনীতির হালচাল দেখে অর্জুন টের পেয়েছিলেন বিজেপি করে ভাটপাড়ায় টিকে থাকা যাবে না। পুরভোটে হারের পর এলাকাতেও ক্রমশ বিচ্ছিন্ন হচ্ছিলেন। তার ওপর আবার বিজেপি-র রাজ্য নেতৃত্বের ঢিলেঢালা ভাব দেখে বিরক্ত হয়েই নাকি তৃণমূলে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন অর্জুন।

মজার কথা, ২০১৯ সালে আসল যে কারণে তৃণমূলে ফিরেছিলেন অর্জুন সিং, সেটা পুরো পাল্টে গেল। বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে তাঁকে দাঁঢড় না করিয়ে দীনেশ ত্রিবেদীকে প্রার্থী করা রাগ দেখিয়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন অর্জুন। তারপর বিজেপি-র টিকিটে বারাকপুর লোকসভায় দাঁড়িয়ে দীনেশ ত্রিবেদীকে হারিয়েছিলেন অর্জুন। এরপর দীনেশ ত্রিবেদী তৃণমূলের রাজ্যসভার পদ ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছেন। তার মানে মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ পাল্টে গেল। সেদিনের তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদী এখন বিজেপিতে, আর বিজেপি-র অর্জুন সিং ফিরলেন তৃণমূলে।