Madhyamik 2020: মাধ্যমিকের প্রথম দিনেই বাংলাভাষার প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ
প্রতীকী (Photo Credits: Pixabay)

কলকাতা, ১৮ জানুয়ারি: বাড়তি নিরাপত্তা সত্ত্বেও মাধ্যমিকের (WBBSE Madhyamik 2020) প্রথমদিনেই প্রশ্ন বিভ্রাট। পরীক্ষা শুরু কিছুক্ষণের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ল প্রথম ভাষা বাংলার প্রশ্নপত্র (Question Paper Leak)। এমনটাই অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু ভাইরাল প্রশ্নটিতেই পরীক্ষা (Bengali Exam) হচ্ছে কি না, তা স্পষ্ট নয় এখনও। বেলা ৩ টেয় পরীক্ষা শেষের পরই প্রকাশ্যে আসবে পুরো বিষয়টি। পরীক্ষাকেন্দ্রে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এমনটাই দাবি করেছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ব্যবহারের উপরও জারি ছিল নিষেধাজ্ঞা। এত নিরাপত্তা থাকা স্বত্ত্বেও পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টার মধ্যেই হোয়াটসঅ্যাপের মারফত প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠল।

আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকেই শুরু হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা। উত্তেজনা, উৎকণ্ঠা ভয় তো ছিলই। সেসবের মধ্যে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগকে কেন্দ্র করে শুরু হল বিতর্ক। প্রশ্নফাঁস রুখতে পরীক্ষা চলাকীলান ৪৩ টি ব্লকে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছিল। কিন্তু শেষমেষ গিয়েও প্রশ্নফাঁসের অভিযোগকে ঘিরে প্রশ্নের মুখে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায়। বাংলা পরীক্ষা কী তবে বাতিল করে দেওয়া হবে? সেই নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অনেকে। আরও পড়ুন: Tapas Pal's Death: তাপস পালের মৃত্যুর জন্য দায়ী সিবিআই, অভিযাগ তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জির

কিন্তু এই ঘটনা নাকি নজরগোচরই হয়নি পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গাঙ্গুলির। এদিন কল্যাণময়বাবু জানান, "বিষয়টি আমার জানা নেই, আমাকে ওই প্রশ্নপত্র পাঠান।" ভাইরাল হওয়া প্রশ্নটিতেই পরীক্ষা (Bengali Exam) বজায় থাকবে নাকি তা বাতিল করে পরীক্ষা হবে তা স্পষ্ট নয় এখনও।

গত বছর ও প্রশ্ন ফাঁস বিতর্কে জড়িয়েছিল মাধ্যমিক পরীক্ষা। ৭টি পরীক্ষারই প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে গিয়েছিল। আই এবার বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছিল ২ ঘণ্টা বন্ধ রাখার কথা বলা হয়েছিল ইন্টারনেট। কিন্তু সেই নিরাপত্তাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ফাঁস হওয়ার অভিযোগ উঠল প্রশ্নপত্র।