Suvendu Adhikari in Nandigram: দিলীপ, কৈলাস, মুকুলের উপস্থিতিতে আজ নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর সভা, সরগরম রাজ্য রাজনীত
শুভেন্দু অধিকারী (Poto Credits: Facebok)

নন্দীগ্রাম, ৮ জানুয়ারি: নন্দীগ্রাম নামের সঙ্গেই জড়িয়ে আছে তৃণমূলের সংগ্রামের দিনগুলি। ২০১১-য় ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসানের নেপথ্যে বড় ভূমিকা নিয়েছিল সেদিনে নন্দীগ্রাম। যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক হিসেবে একদা নিজের জাতীয় রাজনীতিতে নিজের আসন পাকা করে নিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আজ পাশা উল্টে গিয়েছে। শুভেন্দু বিজেপি নেতা। আর ২০২১-র শুরুতে সেই শহীদের রক্তে রাঙা নন্দীগ্রামের মাটিতে বিরাট রাজনৈতিক সমাবেশ করতে চলেছে বিজেপি। মাস ছয়েক আগেও শুভেন্দুর গড়ে গেরুয়া শিবিরের সভা ভাবাই যেত না। লোকসবা নির্বাচনের আগে নন্দীগ্রামে গিয়ে প্রায় পালিয়ে আসতে হয়েছিল বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। আজ আর সেই দিন নেই। এখন শুভেন্দুর নন্দীগ্রাম দিলীপবাবুর অপেক্ষায় পথ চেয়ে রয়েছে। আরও পড়ুন-Taimur Gets Marriage Proposal: তৈমুরকে বিয়ের প্রস্তাব দিলেন নোরা ফাতেহি, কী বললেন ইয়ামি মাম্মি করিনা?

শুধু দিলীপ ঘোষই বা বলি কেন। বিজেপি নেতা মুকুল রায়ও নন্দীগ্রাম ঢুকবেন প্রথমবার। তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড হিসেবে নন্দীগ্রামের মাটিতে অনেকবার বক্তব্য রাখলেও এই প্রথম পদ্মশিবিরের হয়ে নন্দীগ্রামে পা রাখছেন। তৃণমূলের উত্থান পতনে য়ার বিরাট ভূমিকা রয়েছে সেই মুকুল রায়। বাম জমানায় একদা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে তৎকালীন শাসকদল সিপিএমের বিরুদ্ধে অধিকার বুঝে নিতে এই নন্দীগ্রামে লড়াই করেছিলেন। তবে ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর আর তার নন্দীগ্রামে যাওয়া হয়নি। আসলে দাপুটে নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে অগ্রাহ্য করে নন্দিগ্রামের মাটিতে পা রাখবে বিরোধীরা এ তো ভাবাই যায় না। তবে সময় বদলেছে, শুভেন্দু নিজে এখন বিরোধী দলের তুরুপের তাস তাই মুকুল রায়, দিলীপ ঘোষের মতো বিজেপি নেতারা আজ নন্দীগ্রামে স্বাগত।

গতকাল সেখানে তৃণমূলের সভা হয়েছে আজ নন্দীগ্রাম দেখবে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর ক্ষমতা। এদিকে সভার আগেই যুযুধান দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে সরগরম নন্দীগ্রাম। তৃণমূলের অভিযোগ, টেঙ্গুয়া এলাকায় রাতের অন্ধকারে দলীয় পতাকা ছিঁড়েছে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। অন্যদিকে বিজেপির দাবি, খেজুরি-সহ বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাস বোঝাই কর্মীরা নন্দীগ্রামে পৌঁছাতে পারছেন না। তৃণমূলের লোকজন সেই বাসের পথ আটকে দিয়েছে। এই ঘটনায় স্বভাবতই ক্ষুব্ধ শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা কণিষ্ক পাণ্ডা বলেছেন, তৃণমূল সভা আটকাতে রাস্তায় দুষ্কৃতী নামিয়ে দিয়েছে। তবে এভাবে সভা আটকানো যাবে না। বিজেপির ঐতিহাসিক সমাবেশ আজ হবেই। গতকাল তৃণমূলের সভায় সুব্রত বক্সি যা যা বলেছেন আজ তার জবাব ধরে ধরে দেবেন শুভেন্দু অধিকারী। দলবদলের পর নিজের গড়ে সমাবেশ করছেন বলে কথা।