প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উচ্চ পর্যায়ের বৈছকের পরই নেওয়া হয় সিদ্ধান্ত।