James Webb Space Telescope: লক্ষ্য মহাবিশ্বের সূচনা সম্পর্কে জানা, আজ মহাকাশে রওনা দেবে হাবলের উত্তরসূরি জেমস ওয়েব টেলিস্কোপ
James Webb Space Telescope

ওয়াশিংটন, ২৫ ডিসেম্বর: হাবল টেলিস্কোপের চেয়ে আরও শক্তিশালী টেলিস্কোপকে আজ মহাকাশে পাঠাতে চলেছে নাসা (NASA)। এই টেলিস্কোপের নাম জেমস ওয়েব (James Webb Space Telescope)। ১০ বিলিয়ন ডলার খরচ করে তৈরি এই টেলিস্কোপটিকে অবশ্য গত শনিবারই মহাকাশে পাঠানোর কথা ছিল। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটি থাকায় পিছিয়ে দেওয়া হয় উৎক্ষেপণের তারিখ। আজ ২৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ২০ মিনিটে, ভারতীয় সময় সন্ধে ৫টা ৫০ মিনিটে ফরাসি গুয়ানার (French Guiana) কৌরোতে গুয়ানা স্পেস সেন্টার (Guiana Space Center) থেকে এই টেলিস্কোপকে নিয়ে রওনা দেবে ‘আরিয়ান-৫’ রকেট।

এই টেলিস্কোপ বানাতে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার সঙ্গে হাত মিলিয়েছে ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি এবং কানাডিয়ান স্পেস এজেন্সি। পৃথিবী থেকে ১০ থেকে ১৫ লক্ষ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করবে এই টেলিস্কোপ। তবে উৎক্ষেপণের পরে সেই স্থানে পৌঁছতে তার লাগবে মাসখানেক। তারপর পুরোপুরি কাজ শুরু করতে এই টেলিস্কোপের সময় লাগবে আরও ৬ মাস। তারপরই ধীরে ধীরে মহাকাশের নানা অজানা স্থানের ছবি নিজের লেন্সে ধরতে শুরু করবে জেমস ওয়েব। আরও পড়ুন: PUBG: এই নভেম্বরে বিশ্বজুড়ে সর্বোচ্চ ডাউনলোডেড মোবাইল গেম PUBG, রাজস্ব উঠল ২৫৪ মার্কিন ডলার

গত তিন দশক ধরে হাবল স্পেস টেলিস্কোপের সাফল্যের পর এবার ব্রহ্মাণ্ডের আরও গভীরে পর্যবেক্ষণ করতে চায় নাসা। আর সেই কাজেই তাদের সেনানি হল হাবলের এই উত্তরসূরি। এক বিবৃতিতে নাসা বলেছে, "জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ এখনও পর্যন্ত নির্মিত বৃহত্তম এবং সবচেয়ে শক্তিশালী স্পেস টেলিস্কোপ। ৩ দশক ধরে ১০ বিলিয়ন ডলার খরচ করে এটি বানানো হয়েছে। আশা করছি যে প্রথম নক্ষত্রের সৃষ্টি এবং আমাদের মহাবিশ্বের সূচনা সম্পর্কে আরও জানতে পারব। ব্রহ্মাণ্ডের আরও গভীরে পর্যবেক্ষণ করতে পারব।"