Chris Silverwood: সিডনি টেস্টের আগে করোনা আক্রান্ত ইংল্যান্ড কোচ ক্রিস সিলভারউড
Chris Silverwood. (Photo Credits: Twitter)

সিডনি, ২ জানুয়ারি: অ্যাসেজের মাঝে ইংল্যান্ড শিবিরে করোনার হানা। বুধবার থেকে শুরু হতে চলা অ্যাসেজের সিডনি টেস্টের আগে করোনায় আক্রান্ত হলেন ইংল্যান্ডের হেড কোচ ক্রিস সিলভারউড (Chris Silverwood)। তবে উপসর্গহীন থাকায় তাঁকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকলেই চলবে। হোবার্টে অ্যাসেজের শেষ টেস্টের আগে তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে। ৪৬ বছরের ইংল্যান্ড কোচ সিলভারউড গত দু দিন ধরে আইসোলেশনে ছিলেন, কারণ তিনি কোভিড আক্রান্তের সংস্পর্শে এসেছিলেন। এদিন সকালে ইংল্যান্ডের প্র্যাকটিশ বাতিল হয়ে যায় দলের এক নেট বোলার করোনা আক্রান্ত হওয়ায়। এরপর দুপুরে সিলভারউডের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। অ্যাসেজে খারাপ ফলের জেরে চাকরি যেতে বসেছে সিলভারউডের। শোনা যাচ্ছে সিলভারউড অ্যাসেজ শেষে দেশে ফিরলেই তাঁকে কোচের পদ থেকে বরখাস্ত করা হত।

শোনা যাচ্ছে ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার অ্যাডাম হলিওক-কে জো রুটদের কোচিং স্টাফে ঢোকানো হতে পারে। এদিকে, সিডনি টেস্টকে পিঙ্ক টেস্টে পরিণত করার উদ্যোক্তা গ্লেন ম্যাকগ্রা নিজেও করোনায় আক্রান্ত। সব মিলিয়ে বুধবার থেকে শুরু হতে চলা সিডনি টেস্টের আগে কোভিড পরিস্থিতি মোটেও ভাল নয়। তবে ভাল খারাপ হল, অস্ট্রেলিয়া দলের সমস্ত ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ, ও পরিবারের সদস্যদের কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দলের প্রত্যেকের রোজ কোভিড পরীক্ষা করা হচ্ছে। এর আগে অ্যাসেজ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের আগে কোভিড আক্রান্তের সংস্পর্শে আসায় সেই ম্যাচে খেলতে পারেননি অজি অধিয়াক প্যাট কামিন্স। কামিন্সের পরিবর্তে সেই টেস্টে দলকে নেতৃত্ব দেন স্টিভ স্মিথ। এরপর তৃতীয় টেস্টে দলে ফেরেন কামিন্স। আরও পড়ুন: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন পেসার গ্লেন ম্যাকগ্রা

প্রসঙ্গত, দু টেস্ট বাকি থাকতে ইতিমধ্যেই অ্যাসেজ সিরিজ জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ৫ জানুয়ারি থেকে সিডনিতে শুরু চতুর্থ টেস্টে আর ১৪ জানুয়ারি থেকে হোবার্টে হবে চলতি অ্যাসেজের পঞ্চম তথা শেষ টেস্ট ম্যাচ। কোভিড সংক্রমণ মারাত্মক বেড়ে যাওয়া এবং কঠোর বিধির কারণে অ্যাসেজের পঞ্চম টেস্ট পারথ থেকে সরিয়ে হোবার্টে নিয়ে যাওয়া হয়।