TikToker Siya Kakkar's Death by Suicide: সুশান্তের পর সিয়া কক্কর, অবসাদে আত্মঘাতী এই টিকটক স্টার
সিয়া কক্কর(Photo Credits: Instagram)

সুশান্ত সিং রাজপুতের পর এবার টিকটক আর্টিস্ট সিয়া কক্কর (Siya Kakkar)। নিজের বাড়িতেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হলেন এই বছর ১৬ কিশোরী। এখনও সুশান্তের আত্মহননের দুঃখ কাটিয়ে উঠতে পারেনি গোটা দেশ ফের সেই অবসাদে আত্মঘাতীর খবর। মনের মধ্যে গুমরে গুমরে বেড়ে ওঠা অবসাদ যে কতটা প্রাণঘাতী তা বার বার প্রমাণ দিচ্ছে। প্রায় ১০ লাখ ভিউয়ার্স নিয়ে একদিন আগেও বেশ হাসিখুশি ছিলেন সিয়া কক্কর। বৃহস্পতিবার রাতেও ম্যানেজার অর্জুন সারিনের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। শুক্রবার সকালে সিয়ার আত্মহননের খবর তাই রীতিমতো হতবাক অর্দুন বলেন, গতকাল রাতেও খুশিই ছিলেন সিয়া।

নতুন কিছু গান নিয়ে কাজ করার পরিকল্পনাও হয়েছিল। তাছাড়া লকডাউনে বাড়ি থেকেই চলছিল কাজ। হাত খালি থাকার কোনওরকম সম্ভাবনাও ছিল না। এক রাতের মধ্যে কী এমন হয়ে গেল যে সকাল পর্য়ন্ত অপেক্ষা করেত পারলেন না সিয়া কক্কর। রাতেই নিজের ঘরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ১৬ বছরেই জীবনের ইতি টানলেন তিনি। বলিউডের নাচের ও গানের ভিডিও-র সঙ্গে লিপ সিংক করে বানানো টিকটক ভিডিওতে সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুণ জনপ্রিয় একটি নাম সিয়া কক্কর। সম্প্রতি টিকটকে ১০ লক্ষ ভিউয়ার্স হওয়ায় দারুণ খুশি সিয়া অনুরাগীদের ধন্যবাদ জানিয়েও ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে নতুন গান মুক্তি নিয়েও আভাস দিয়েছিলেন। তারপর সোজা টিকটক আর্টিস্টের মৃত্যুর খবরে অনুরাগীরাও মুষড়ে পড়েছে।

কিশোর কিশোরীদের আত্মহননের ঘটনা নতুন কিছু নয়। এই সমস্যা শুধু আতঙ্কেরই নয়, রীতিমতো স্পর্শকাতরও। এই পরিস্থিতি এড়াতে হলে অবশ্যই কারোর সঙ্গে নিজের সমস্যা শেয়ার করুন, মনের কথা কুলে বলুন চেপে থাকবেন না। তাতে সমাজে অবসাদে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হবে। সিয়ার খবর প্রথম প্রকাশ্যে আনেন ভাইরাল ভবানী। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান, প্রীত বিহারে নিজের বাড়িতে বৃহস্পতিবার রাতে আত্মহত্যা করেছে সিয়া। তার পরেই ভবানীর আকুল আর্তি, ‘‘বলিউডের প্রতি অনুরোধ, কেউ যদি অবসাদে ভোগেন, দয়া করে মুখ খুলুন। এ ভাবে নিজেকে শেষ করে বলিউডকে নিঃস্ব করে দেবেন না।’’