Durga Puja Special Homemade Sweets Making Recipe: দুর্গাপুজোর অষ্টমী হোক বা দশমী মিষ্টিমুখ করুন বাড়িতে তৈরি মিষ্টি দিয়ে
(Photo Credits: Youtube, Wikimedia Commons)

করোনাকালে দুর্গাপুজোয় বাইরে বেড়োনো বড় দায়। তাই বলে মিষ্টি মুখ করবে না বাঙালি তা তো হয় না। আবার বাইরে থেকে মিষ্টি আনাতেও ভয় লাগছে? তবে উপায়? উপায় একটাই। বাড়িতেই বানিয়ে নিন রকমারি মিষ্টি। যেমন টাটকা, খেতেও হবে তেমনই সুস্বাদু। বাড়িতে অতিথি আসলে আপ্যায়নও হবে বাড়ির ছোঁয়ায়।

পুজোয় অষ্টমী হোক বা দশমী অনায়াসে বানিয়ে নিন এই মিষ্টিগুলি-

পান্তুয়া (Pantua Recipe)

শিরার জন্য: জল দেড় কাপ, চিনি দেড় কাপ

মিষ্টির জন্য: ক্রিম-আধ কাপ, গুঁড়ো দুধ ১ কাপ, ময়দা ২ চা-চামচ, ঘি দেড় কাপ ও ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী:

চিনি ও জল একসাথে জ্বাল দিয়ে শিরা তৈরি করুন।

গুঁড়ো দুধ ও ময়দা মিশিয়ে ক্রিম দিয়ে ছেনে মসৃণ ডো তৈরি করুন।

১ টেবিল-চামচ ঘি মিশিয়ে আরেকটু মসৃণ করে ছেনে নিন। ১০-১২টি ভাগ করুন।

হাতের তালুতে একেকটি ভাগ ডো নিয়ে গোল গোল মিষ্টি তৈরি করুন।

কড়াইয়ে ঘি অল্প আঁচে গলিয়ে গরম করুন। এবার মাঝারি আঁচে মিষ্টিগুলো ঘিয়ে ঢেলে লালচে রং করে ভেজে নিন।

সঙ্গে সঙ্গে শিরায় ছেড়ে দিন। ৩-৪ মিনিট মিষ্টিসহ শিরা জ্বাল দিন।

নামিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

লবঙ্গ লতিকা (Labanga Latika Sweet Recipe)

উপকরণ: চিনি, ঘি বা তেল ২ টেবিল চামচ, খোয়া ক্ষীর, এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ প্রয়োজনমতো, ময়দা ১ কাপ, নুন, তেল

প্রণালী:

চিনির রস বানানোর জন্য ২ কাপ জলে ২ থেকে ৩ কাপ চিনি ও ১ টুকরো দারচিনি ও ৪ টি ছোট এলাচ দিয়ে চিনির রস তৈরি করে নিন।

লক্ষ্য় রাখবেন, চিনির রস যাতে গাঢ় হয় ।

ময়দায় সামান্য নুন ও তেল দিয়ে মেখে ডো তৈরি করে নিন।

ঘিতে দারচিনি ভেজে তুলে নিন।

ক্ষীর , চিনি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নামিয়ে নিন।

ছোট ছোট লুচি বেলে তার মাঝখানে পুর দিয়ে চারকোনা পরোটার মতো ভাঁজ করে নিন।

ভাঁজের ঠিক মাঝখানে একটি করে লবঙ্গ দিয়ে আটকে দিন।

লবঙ্গ এমন ভাবে ঢোকাবেন যেন এর ওপরের ফুলটা বাইরে থাকে।

ডুবো ঘি / তেলে ভেজে নিন।

উভয় দিকে সুন্দর বাদামি রং আসা পর্যন্ত ধীরে ধীরে ভাজতে থাকুন।

গ্যাসের আঁচ একেবারে লো রাখবেন।

সব গুলি ভাজা হয়ে গেলে চিনির রসে ৫ থেকে ১০ মিনিট রেখে দিন ।

চিনির রস থেকে উঠিয়ে পরিবেশন করুন সুস্বাদু লবঙ্গ লতিকা। (Kid-Friendly Homemade Bijoya Dashami Misti Recipe)

রসগোল্লা (Rosogolla)

দুধ গরম করে ফুটে উঠলে তাতে ১ থেকে ২ চামচ লেবুর রস দিয়ে দিন ।

দুধ ঘন হয়ে আস্তে আস্তে ছানা ছানা হয়ে যাবে।

ছানা নামিয়ে একটা পরিষ্কার পাতলা কাপড়ে ঢেলে নিন।

পাতলা কাপড়ে বেঁধে টাঙিয়ে রাখুন যাতে ছানা থেকে ভালো করে জল ঝরে যায়।

ছানা দুইভাগে ভাগ করে নিন ।

এক ভাগ ছানা হাত দিয়ে ভালো করে মেখে নিন ।

মাখা ছানা দিয়ে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিন।

একটি পাত্রে এক কাপ চিনি আর তিন কাপ জল দিয়ে পাতলা করে চিনির রস বানিয়ে নিন।

ছানার বলগুলো ফুটন্ত রসে ছেড়ে মিডিয়াম আঁচে ২০ থেকে ২৫ মিনিট ঢাকা দিয়ে রান্না করলে রসগোল্লা তৈরি হয়ে যাবে।

ছানার সন্দেশ (Sandesh Recipe)

উপকরণ:

ছানা ৪ কাপ, ক্রিম ১৭০ গ্রাম, চিনি ২ কাপ, মেওয়া (গ্রেটেড) দেড় কাপ, এলাচ গুঁড়ো দেড় চা-চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী:

তিন ভাগের দু’ভাগ ছানা মাঝারি আঁচে অল্প অল্প করে চিনি দিয়ে রান্না করুন।

চিনি ও ছানা মিশে গেলে বাকি এক ভাগ ছানা দিয়ে নাড়ুন।

এবার জল টেনে ছানা চিনিতে মিশে পাক ধরলে ক্রিম ও মেওয়া মিশিয়ে গ্যাস ওভেন বন্ধ করে নিন।

মাখন ব্রাশ করে ছানা ঢেলে খুন্তি দিয়ে চেপে সমান করুন।

ঠান্ডা হলে ফ্রিজে ৪-৫ ঘণ্টা রাখুন।

এবারে চৌকো বা বরফির আকারে কেটে ওপরে পেস্তা কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।